মিনার উদ্দেশে রওনা আজ

পবিত্র হজ পালন করতে আজ বৃহস্পতিবার এশার নামাজ আদায় করে মিনার উদ্দেশে রওনা হবেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। মক্কার মসজিদুল হারাম থেকে প্রায় ৯ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত মিনায় ৭ জিলহজ থেকে ১২ জিলহজ (বৃহস্পতিবার থেকে মঙ্গলবার) পর্যন্ত অবস্থান করবেন তারা। ৬ দিন মিনায় কাটিয়ে ১২ জিলহজ গন্তব্যে ফিরবেন হাজিরা।

পায়ে হেঁটে বা গাড়িতে রওনা দেবেন হাজিরা। প্রথমে তারা মিনায় অবস্থান করবেন। এরপর আরাফাত, মুজদালিফা, মক্কা শেষে আবার মিনায় অবস্থান করবেন হজের অংশ হিসেবে। এ বিষয়ে হাজিদের বিস্তারিত দিকনির্দেশনা দিবেন নিজ নিজ মোয়াল্লেম।

৮ জিলহজ মিনায় সারা দিন এবং ৯ জিলহজ ফজরের নামাজ আদায় করে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে আরাফাতের ময়দানে সূর্যাস্ত পর্যন্ত অবস্থান করবেন হজযাত্রীরা। আরাফাত থেকে প্রায় ১২ কিলোমিটার দূরে মুজদালিফায় রাত যাপন ও পাথর সংগ্রহ করবেন হজযাত্রীরা।

১০ জিলহজ ফজরের নামাজ আদায় করে মুজদালিফা থেকে আবার মিনায় ফিরে আসবেন। মিনায় এসে বড় শয়তানকে পাথর মারা, দমে শোকর বা কোরবানি ও মাথা মুণ্ডন বা চুল ছেঁটে মক্কায় কাবা শরিফ তাওয়াফ ও সাফা-মারওয়া সাঈ করবেন।

এদিকে সৌদি আরবের প্রেস এজেন্সি (এসপিএ)’র পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ইতোমধ্যে এবছর হজ পালন করতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে মোট ১৭ লাখ হাজি মক্কায় পৌঁছেছেন। এর মধ্যে গত সোমবার পর্যন্ত বিমানের আসা হাজিদের সংখ্যা ছিল ১৬ লাখ ৬৪ হাজার ৯৭৪ জন। পাশাপাশি সড়ক পথে ৯২ হাজার ৮৪৪ জন ও সাগরপথে হজ পালন করতে এসেছেন ১৭ হাজার ২৯২ জন মুসল্লি।

এসপিএ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এ বছর গেলবারের চেয়ে হজ যাত্রীর সংখ্যা ৭ গুণ বৃদ্ধি পাবে। যেখানে গেল বছরের চেয়ে এবার ১ লাখ ১৭ হাজার ২২৩ জন বেশি হজযাত্রী হজ পালন করবেন।

সৌদির আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, অন্যান্য বছরের মতো এবারও হজের সময় মক্কায় তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে। ওই সময় তাপমাত্রা ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যেতে পারে। যেখানে আদ্রতা থাকবে ৮৫ শতাংশ। আকাশ থাকবে আংশিক মেঘলা।