সবজি ও ফলের নিরাপদ ফসল ব্যবস্থাপনা শীর্ষক কৃষক প্রশিক্ষণ

গত ৬ মে, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ময়মনসিংহের উদ্যোগে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার কালাদহ বাজারে ‘সবজি ও ফলের নিরাপদ ফসল ব্যবস্থাপনা’ শীর্ষক এক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। এ উপলক্ষে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, বিশিষ্ট সবজি চাষী মোঃ আব্দুল আলী এবং প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, ময়মনসিংহ অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক মোঃ আসাদ উল্লাহ। প্রশিক্ষণে কালাদহ ইউনিয়নের প্রায় শতাধিক ফল ও সবজি চাষী অংশ গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেব উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, ময়মনসিংহের উপপরিচালক মোঃ আব্দুল মাজেদ ও নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলের সাবেক মহাব্যবস্থাপক (কৃষি) নিতাই চন্দ্র রায়।এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মোঃ লুৎফর রহমান, ফুলবাড়িয়া উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা মোসামৎ নার্গিস আক্তার ও সম্প্রসারণ কর্মকর্তা এমদাদুল হক । কৃষকদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন, মোঃ আব্দুল হালিম, আঃ সাত্তার ও মোঃ হায়দার আলী প্রমুখ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত পরিচালক মোঃ আসাদ উল্লাহ বলেন, আমারা খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছি। এখন আমাদের প্রয়োজন নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাদ্য উৎপাদন।সবজি ও ফলমূলে রাসায়নিক বিষ প্রয়োগ ছাড়াও ফেরোমন ফাঁদ ও জৈব বালাইনাশক ব্যবহারের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসম্মত সবজি ও ফল উৎপাদন সম্ভব।অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের কীটতত্ত্ব বিভাগের ঊর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মোঃ তাজমুল হক নিরাপদ ফল ও সবজি ব্যবস্থাপনায় বিভিন্ন প্রকার ফেরোমন ফাঁদ ও জৈব কীটনাশকের প্রয়োগ পদ্ধতি উপস্থিত কৃষকদের হাতে-নাতে শিখিয়ে দেন।