ময়মনসিংহে জেডিসি পরীক্ষার্থীকে অপহরণ ও গণধর্ষণের প্রধান আসামী বগুড়া থেকে গ্রেফতার

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :
ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার পাগলা থানা পুলিশ তথ্য-প্রযুক্তি সহায়তায় ও নাটকীয় কায়দায় জেডিসি পরীক্ষার্থীকে অপহরণ ও গণ- ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি বিপ্লব মেকার (৩৫) কে গ্রেফতার করেছে। বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ থানার গুজিয়া গ্রামে ভাবির বান্ধবীর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেন পুলিশ।
থানা সূত্রে জানা যায়, মামলা দায়েরের পর থেকে পাগলা থানা পুলিশ আসামিদের গ্রেফতার করতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায়। কিন্তু আসামিরা স্থান বার বার পরিবর্তন করায় গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। গত মঙ্গলবার প্রধান আসামি বিপ্লব মেকার ঢাকায় অবস্থান করার খবর পেয়ে তথ্য-প্রযুক্তির ব্যবহার ও নজরদারির মাধ্যমে অবস্থান চিহ্নিত করা হয়। কিন্তু পুলিশের তৎপরতা টের পেয়ে বিপ্লব মেকার বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ থানার গুজিয়া গ্রামে ভাবির বান্ধবীর বাড়ি চলে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ পরিদর্শক ফয়েজুর রহমান আসামির ওপর নজর রাখতে বিশ্বস্ত গোয়েন্দা নিয়োগ করেন।বুধবার দিবাগত রাত ৩টায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রধান আসামি বিপ্লব মেকারকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসেন।
উল্লেখ্য, উপজেলার পাগলা থানাধীন উস্থি ইউনিয়নের দাইরগাঁও গ্রাামের আব্দুস ছালামের ছেলে বিপ্লব মেকার(৩৫), পাশের কলুরগাঁও গ্রামের হেলাল উদ্দিন শেখের ছেলে শারফুল (২৬), মুর্শিদ খানের ছেলে ওয়াসির খান(২৮) দাইরগাঁও বালিকা দাখিল মাদ্রাসার চলতি বছরের জেডিসি এক পরীক্ষার্থীকে গত ৬ অক্টোবর বাড়ির সামনে থেকে ফুঁসলিয়ে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে ২৬ দিন আটকে ধর্ষণ করে। গত ১ নভেম্বর শুক্রবার ভোরে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় মেয়েটিকে দাইরগাঁও বালিকা দাখিল মাদরাসার সামনের রাস্তায় ফেলে যায় পাষন্ডরা।
পরিবারের লোকজন এসে মেয়েটিকে বাড়ি নিয়ে যান। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা শুক্রবার রাতে পাগলা থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ অবস্থায় মেয়েটি চলতি জেডিসি পরীক্ষা দিতে পারেনি।
পাগলা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ফয়েজুর রহমান বলেন, প্রধান আসামি বিপ্লব মেকারকে ধরতে একাধিক অভিযান চালানো হলেও বারবার অবস্থান পরিবর্তন করায় সম্ভব হয়নি। অবশেষে বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ থানার গুজিয়া গ্রামে ভাবির বান্ধবীর বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। অন্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।