ইউক্রেনে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু

অনলাইন ডেস্ক : রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি দেশটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার খবর নিশ্চিত করেছেন।
জেলেনস্কি বলেছেন, রাশিয়া ইউক্রেনের অবকাঠামো এবং সীমান্তরক্ষীদের ওপর ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে মিসাইল হামলা দিয়ে রাশিয়া এই যুদ্ধ শুরু করেছে বলে নিশ্চিত করেছেন ইউক্রেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের উপদেষ্টা অ্যান্তন গেরাসচেনকো।
বৃহস্পতিবার ভোরে তিনি বলেন, “রাজধানী কিয়েভে মিসাইল হামলা হয়েছে। কিয়েভ ও খারকিভের সেনা সদরদপ্তরগুলো হামলা চালানো হচ্ছে। এছাড়া সীমান্ত এলাকাতে গুলির শব্দ শোনা যাচ্ছে।”
এদিকে, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার ভোরে এক টেলিভিশন বক্তৃতায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনের ডনবাস তথা ডোনেটস্ক ও লুহানস্কে সেনা অভিযানের ঘোষণা দেন। এরপরই যুদ্ধ শুরু হয়।

এরই মধ্যে ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের পাঁচ থেকে ছয়টি স্থানে বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শোনা গেছে।
এছাড়া ডোনেটস্কের ক্রামাটস্কেও ভয়াবহ বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে।
এদিকে, সেনা অভিযানের ঘোষণা দিয়ে পুতিন ডনবাসে নিয়োজিত ইউক্রেনীয় সেনাদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানিয়েছেন।
পুতিন বলেন, “আপনারা আপনাদের অস্ত্র সমর্পণ করুন এবং ঘরে ফিরে যান।”
সেই সঙ্গে তিনি বলেন, ডনবাসে রক্তপাত হলে এর দায়ভার পুরোপুরি ইউক্রেন সরকারের।
তবে পুতিন বলেন, “ইউক্রেন দখল করার কোনও পরিকল্পনা আমাদের নেই। আমরা নিজেদেরকে কারও ওপর চাপিয়ে দিতে চাই না।”