৫০ টি অক্সিজেন সিলিন্ডার ও ফ্রি এ্যাম্বুলেন্স দিলেন মেয়র টিটু ও শামীম

মাসুদ রানা, ময়মনসিংহ :
করোনা রোগীর চিকিৎসায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ব্যক্তিগত উদ্যোগে ৫০ টি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়েছেন ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু এবং ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মোঃ আমিনুল হক শামীম (সিআইপি) ।
বুধবার ২৮ জুলাই দুপুরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কনফারেন্স রুমে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মচিমহার পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডাঃ ফজলুল কবীরকে মসিক মেয়র ও চেম্বার অফ কমার্স এর সভাপতি এ অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান করেন। সিলিন্ডার প্রদান অনুষ্ঠানে মেয়র টিটু বলেন, করোনা মোকাবেলায় সারা বিশ্বে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবতার নেত্রী হিসেবে নজির স্থাপন করেছেন। প্রধানমন্ত্রী আহবান জানিয়েছেন, সামর্থ্যবান মানুষেরা যেন সাধারন মানুষের পাশে দাঁড়ায়। তাঁর এ আহবানে সাড়া দিয়ে বহু মানুষ খাদ্য, চিকিৎসা ইত্যাদি নানা এ দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। যা এই দুর্যোগ উত্তরোণে গুররুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে আমরা ইতোপূর্বেও সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবো। তিনি আরো বলেন, আমরা দেখেছি অনেক দেশে করোনা রোগি বৃদ্ধি পেলে চিকিৎসা সংকট ভেঙে পড়ে। আমাদের যেন এ অবস্থা না তৈরি হয় সেজন্য সচেষ্ট থাকতে হবে সকলকে। সচেতনতার মাধ্যমে সংকটকে জয় করতে হবে। সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপানারা সকল সংকটে পথ প্রদর্শক হিসেবে কাজ করেন। স্বাস্থ্যবিধি অনুসরন, সরকার নির্দেশিত পন্থা অনুসরন, মাস্ক পরিধান এবং টিকা নেবার মাধ্যমে করোনাকে প্রতিরোধে প্রচারের মাধ্যমে আপনাদের আরো ভূমিকা রাখতে হবে। আমরা যদি অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন করি তবে যতই হাসপাতালের সুযোগ সুবিধা বা বেড বাড়ানো হোক না কেন তা কাজে আসবে না। তিনি আরো বলেন, কোভিড রোগীর চিকিৎসায় অক্সিজেন সবচেয়ে বড় । আমাদের কিছুটা সংকট রয়েছে। তাই ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাড়া দিয়ে এই মুহূর্তে ৫০ টি অক্সিজেন সিলিন্ডার আমরা দিয়েছি। মেয়র তাঁর বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী যে একজন দূরদর্শী নেতা তা তিনি বার বার প্রমাণ করেছেন। ‍উন্নত বহু দেশ যখন করোনা ভ্যাকসিন সংগ্রহ করতে পারেনি তখন প্রধানমন্ত্রী প্রথম কাতারেই বাংলাদেশকে ভ্যাকসিনেশনের সাথে সম্পৃক্ত করেছেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রমকে সফল করতে যত টাকাই লাগুক আমাদের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে। আমরা সৌভাগ্যবান যে এমন মানবিক গুণাবলী সম্পন্ন একজন প্রধানমন্ত্রী পেয়েছি। আমাদের এখন দায়িত্ব হবে সকলে মিলে ভ্যক্সিনেশন কার্যক্রমকে সফল করে তোলা। অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মোঃ আমিনুল হক শামীম তাঁর বক্তব্যে করোনা মোকাবেলায় সক্ষমতা বাড়াতে ব্যবসায়ীদের এগিয়ে আসার আহবান জানান। তিনি বলেন, আমরা আপনাদের সাথে আছি। ভবিষ্যতেও ময়মনসিংহ মডিকেল কলেজের যেকোন সহযোগিতায় আমরা সাথে থাকবো। অনুষ্ঠানে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ চিত্তরঞ্জন দেবনাথ, বিএমএ সভাপতি ডাঃ মতিউর রফমান ভূইয়া, ময়মনসিংহ স্বাচিপ সভাপতি এইচ এ গোলন্দাজ তারা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মচিমহার উপ-পরিচালক ডা: মোঃ ওয়ায়েজউদ্দীন ফরাজী, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ এইচ কে দেবনাথ, ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহ সভাপতি শংকর সাহা, ময়মনসিংহ জেল মটর মালিক সমিতির মহাসচিব মাহবুবুর রহমান, কোচ বিভাগের পরিচালক সোমনাথ সাহা, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকবৃন্দ, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তাবৃন্দ এবং বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ প্রমুখ । এ অনুষ্ঠানের শেষে মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গণে মসিক মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু এবং ময়মনসিংহ চেম্বার সভাপতি মোঃ আমিনুল হক শামীম ব্যাক্তিগতভাবে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগকে করোনা রোগী ও করোনায় মৃত লাশ পরিবহনে ১টি ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স এবং করোনা রোগীর সহযোগিতায় ০৮ টি অক্সিজেন সিলিন্ডার প্রদান করেন। এ সময় মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।