১০ মাস পর স্বশরীরে মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী

করোনা মহামারির কারণে প্রায় ১০ মাস পর মন্ত্রিসভার বৈঠকে স্বশরীরে যোগ দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। করোনাকালে নিয়মিত মন্ত্রিসভার বৈঠক হলেও গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত থাকতেন প্রধানমন্ত্রী। সোমবার জাতীয় সংসদের মন্ত্রিসভা কক্ষে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে সরাসরি অংশ নিয়ে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী। ওই বৈঠকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ছয়জন মন্ত্রী ও ছয়জন সচিব অংশ নেন।

গত বছরের ৬ এপ্রিল সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতিতে গণভবনে মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠক হয়েছিল। ওই বৈঠকেও কয়েকজন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী ও সচিবরা অংশ নিয়েছিলেন। এরপর থেকে মন্ত্রিসভার বৈঠকগুলো ভার্চুয়ালি হয়েছে।

সাধারণত প্রতি সোমবার সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী ও সচিবরা বৈঠকে অংশ নেন। আর গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী।

আজকের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর বাম পাশে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক আর ডান পাশে কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক বসেন। আর সামনের দিকে এক পাশে অন্য চারজন মন্ত্রী এবং আরেক পাশে মন্ত্রিপরিষদ সচিবসহ অন্য সচিবরা বসেন। সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে বৈঠকে অংশ নেন বলে সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস দেশে প্রথম শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। এরপর কয়েক মাস কার্যত লকডাউন ছিল পুরো দেশ। পরে আস্তে আস্তে সবকিছু স্বাভাবিক হলেও একমাত্র সংসদ অধিবেশন ছাড়া প্রধানমন্ত্রীকে সরাসরি কোনো অনুষ্ঠানে যোগ দিতে দেখা যায়নি। তবে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি প্রায় প্রতিদিনই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগ দিচ্ছেন সরকারপ্রধান।