হাঁটতে হাঁটতে সকল জড়তা কেটে যাবে

93

একুশ আমাদের অহংকার। একুশ আমাদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার দীপ্ত অঙ্গিকার।এ বছর একুশে পদক পেয়েছেন ২৪ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি।ময়মনসিংহ জেলা থেকে গত বছর একুশে পদক পেয়েছিলেন ময়মনিসংহের ভাষা সৈনিক ও মরহুম সাংসদ শামসুল হক। এ বছর ময়মনসিংহ থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের বিশিষ্ট নেতা এবং সাবেক ধর্মমন্ত্রী প্রিন্সিপাল মতিউর রহমান মুক্তিযুদ্ধে অবদানের জন্য এবং ভাষা সৈনিক ও ভালুকা থেকে নির্বাচিত সাবেক সাংসদ মোস্তফা এমএ মতিন ভাষা আন্দোলনের জন্য ২১ শে পদকে ভূষিত হয়েছেন। এ খবর আসা মাত্র
ময়মনসিংহ শহরের মানুষের মনে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়।এই সব কীর্তিমান মানুষের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাতে বীর মুক্তিযোদ্ধা বিমল পাল একুশের পূণ্য স্মৃতি বিজরিত ফেব্রুয়ারি মাসে ভালুকার মল্লিক বাড়ি থেকে মন্ডলের বাড়ি হয়ে মল্লিক বাড়ি পর্যন্ত এক পদযাত্রার কর্মসূচি গ্রহণ করেন।তাঁর এ পদযাত্রার অংশ হিসেবে ত্রিশাল পৌঁছলে তাঁকে ফুলের তোড়া দিয়ে সংবর্ধনা জানান বঙ্গবন্ধু কৃষি পদক প্রাপ্ত লেখক ও কলামিস্ট কৃষিবিদ নিতাই চন্দ্র রায় , নজরুল কলেজের সাবেক অধ্যাপক, কবি সাব্বির রেজা ও বাংলাদেশ টুডের ত্রিশাল প্রতিনিধি মমিনুল ইসলাম। এ পদযাত্রার উদ্দেশ্য সম্পর্কে তিনি বলেন, নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়া।তিনি আরও বলেন, আসুন আমরা হাঁটি, হাঁটতে হাঁটতে সকল জড়তা কেটে যাবে এবং আমাদের সামনে উদ্ভাসিত হবে নতুন সূর্যোদয়।