হলি আর্টিজান মামলার রায়ে সরকার সন্তুষ্ট: আইনমন্ত্রী

তিন বছর আগে ঢাকার কূটনীতিকপাড়া গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিতে নজিরবিহীন জঙ্গি হামলায় ২২ জনকে হত্যার দায়ে নব্য জেএমবির সাত সদস্যের ফাঁসির রায় দিয়েছে আদালত। এ রায়ে সরকার সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। এছাড়া আইএসের টুপিসহ এজলাসে আসামির প্রবেশের ঘটনাটি তদন্ত করা হবে বলে ঘোষণা করেছেন আইনমন্ত্রী।

বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রতিক্রিয়া জানানোর সময় তিনি এ কথা জানান। ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালে হলি আর্টিজান মামলাটির রায় ঘোষণার পর এ প্রতিক্রিয়া জানান তিনি।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ইমেজ সংকট প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, আমার তো মনে হয়, আমরা সারা বিশ্বকে প্রমাণ করতে পেরেছি যে বাংলাদেশে এ রকম হত্যাকাণ্ড হলে তার বিচার অত্যন্ত দ্রুত হয় এবং সকল বিচার আইনি ফরমালিটিস ফলো করে সম্পন্ন করা হয়।

তিনি আরও বলেন, গত ডিসেম্বর থেকে এ মামলার বিচারিক কার্যক্রম শুরু হয়েছিল। ২১১ জন সাক্ষীর মধ্যে প্রয়োজনীয় ১১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণের মাধ্যমে বিচারিক আদালত আজকের এই রায়ে উপনীত হয়েছিলেন। আজকের এই রায় দিয়েছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে আইএসের প্রতীক সম্বলিত টুপি পরে আসামির এজলাসে যাওয়া প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী বলেন, এ প্রশ্নের জবাব আমার পক্ষে দেয়া সম্ভব নয়। তবে এ ব্যাপারটার তদন্ত হওয়া উচিত। তদন্ত যেন হয়, সেজন্য কথা বলবো আমি।