সৌদি আরবে বাংলাদেশি স্কুলে শেখ রাসেল দিবস পালন

46

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের জন্ম দিনে রিয়াদের বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজে শেখ রাসেল দিবস পালন করা হয়েছে।

শিক্ষার্থীদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিরচিত ” আমাদের ছোট রাসেল সোনা” গ্রন্হের উপর কুইজ প্রতিযোগীতার আয়োজন করা হয়।

এ ছাড়াও, সকালে শিক্ষক মিলনায়তনে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে বিদ্যালয়ের বোর্ড অব ডাইরেক্টর্সের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোস্তাক আহম্মদের সভাপতিত্বে এক সভার আয়োজন করা হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের ফাইন্যান্স ডাইরেক্টর মুহাম্মদ আবদুল হাকিম, কালচারাল ডাইরেক্টর সিরাজুল সফিকুল হক, ফ্রেন্ডস অব বাংলাদেশ রিয়াদ (রিয়াদ আওয়ামী লীগ) সৌদি আরবের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শহিদ মাতব্বর প্রমুখ।

বিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞানের প্রভাষক খাদেমুল ইসলামের সঞ্চালনায় সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তিলাওয়াত করেন রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও সহকারী অধ্যাপক ইকবাল আহম্মদ। শিক্ষকদের পক্ষে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন ইসলামী শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র শিক্ষিকা মিসেস আক্তার জাহান, পদার্থ বিজ্ঞানের বিভাগীয় প্রধান ও সহকারী অধ্যাপক সরোয়ার জামান।

স্বাগত বক্তব্যে আগত সকল অতিথিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে শেখ রাসেলের সংক্ষিপ্ত জীবনী তুলে ধরেন এবং ১৯৭৫ সালে ছোট্ট রাসেলকে নৃশংসভাবে হত্যার তীব্র নিন্দা জানান বোর্ড অব ডাইরেক্টর্সের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোস্তাক আহম্মদ। শেখ রাসেলের জন্মদিনকে জাতীয় দিবস হিসেবে ঘোষণা করায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

পরে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনা বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করেন বিদ্যালয়ের ইসলাম শিক্ষা বিভাগের সিনিয়র শিক্ষক মাওলানা নেসার উদ্দিন।

সকালের অনুষ্ঠানের শেষ অংশে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে কেক কেটে এবং মিষ্টি পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

দিনব্যাপী মহুমাত্রিক কর্মসূচি দ্বিতীয় পর্বে শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধিদল বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে বাংলাদেশ দূতাবাসের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।

দূতাবাস কর্তৃক আয়োজিত ১৭ই মার্চের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিদ্যালয়ের ১৮টি ইভেন্টে শিক্ষার্থীরা সফলতার সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ের কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হন।

রাতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের জন্য এক ভার্চুয়াল আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়।

গণিত বিভাগের প্রভাষক শামসুজ্জোহা সম্রাট ও গার্হস্থ্য বিজ্ঞানের সিনিয়র শিক্ষিকা ফারজানা আফনানের যৌথ সঞ্চালনায় এ পর্বেও সভাপতিত্ব করে বোর্ড চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোস্তাক আহম্মদ। এছাড়াও রাতের ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করেন সিনিয়র শিক্ষিকা রওজত আরা শাপলা, ইংরেজি সাহিত্যের প্রভাষক আনিসুর রহমান, বিওডির কালচারাল ডাইরেক্টর সিরাজুল সফিকুল হক, ফাইন্যান্স ডাইরেক্টর মুহাম্মদ আবদুল হাকিম প্রমুখ।