সিরতা ইউপিতে কাজের বিনিময়ে অর্থ প্রধান, শ্রমিকের মুখে প্রশান্তির হাসি

মাসুদ রানা, ময়মনসিংহ ৪ মার্চ :
ময়মনসিংহ সদর উপজেলার ৫ নং সিরতা ইউনিয়ন পরিষদের কর্মসংস্থান প্রকল্পের আওতায় ৫শ ৪৬ জন হতদরিদ্র শ্রমিককে মজুরির টাকা প্রদান করা হয়েছে। ৪০ দিনের এই কর্মসূচিতে হতদরিদ্রদের কাজের বিনিময়ে অর্থ উপার্জনের সুযোগ দিয়েছে সরকার।

বুধবার (৪ মার্চ) দুপুরে সিরতা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ আবু সাঈদ এর সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনায় শ্রমিকদের মাঝে মজুরির টাকা বিতর করা হয়।

এ বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আবু সাঈদ বলেন, আমার ইউনিয়নে হতদরিদ্র শ্রমিকরা সরকারের দেয়া কর্মসংস্থানে কাজ করে তার প্রাপ্য মজুরি বুঝে পাচ্ছে। আমি এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সচ্ছতার মাধ্যমে প্রতি শ্রমিকের নামে মধুমতি ব্যাংক হিসাবে প্রাপ্ত টাকা বন্টনে তদারকি করছি। শ্রমিকরা জবকার্ড অনুযায়ী দিন শেষে ২০০ টাকা করে ৮ হাজার টাকা পাচ্ছে। তারা নিজেদের ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিয়ে ব্যাংক কর্মকর্তাদের কাছ থেকে টাকা বুঝে নিচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকার কর্মসৃজন, কর্মসংস্থান প্রকল্পের মাধ্যমে গ্রামের হতদরিদ্রদের জন্য সহায়তার ব্যবস্থা করেছে। আমাদের দায়িত্ব সঠিক ব্যাক্তি ও প্রাপ্যদের নির্ধারন করে তাদের এ সহায়তার আওতায় এনে তা সঠিক বন্টন করা। এতে বর্তমান সরকারের দেশ উন্নয়ন ভিশন সফল হবে। সফল হবে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার গ্রাম শহরে রুপান্তরের মাধ্যমে উন্নত দেশ গড়ার প্রয়াস।

চেয়ারম্যান আরও বলেন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ হাফিজুর রহমান শ্রমিকদের টাকা প্রদান কর্মসূচি সম্পর্কে কয়েক দফা খোঁজ খবর নেন। এতে উপস্থিত ছিলেন সিরতা ইউনিয়ন আবু আহসান মোঃ রেজাউল হক। যার প্রত্যয়নের ভিত্তিতে অগ্রগতি অনুযায়ী শ্রমিক মজুরি ব্যাংকের মাধ্যমে পরিশোধ করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, কর্মসৃজন প্রকল্পের টাকা সরাসরি মধুমতি ব্যাংক থেকে শ্রমিকরা উঠিয়ে নিচ্ছেন। চেয়ারম্যান নিজে তা তদারকি করছেন। এ সময় আরও উপস্থিত উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা সন্তোষ কুমার,৫নং সিরতা ইউনিয়ন পরিষদ সচিব মোঃ মোজাম্মেল হক, ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি মাসুদ রানা বিজয় প্রমুখ।