সফলভাবে শেষ হলো মেট্রোরেলের প্রথম ডেমো রান

সফলভাবে শেষ হলো মেট্রোরেলের প্রথম ডেমো রান। মঙ্গলবার দুপুরে ওয়ার্কশপ থেকে চালিয়ে কোচ আনলোডিং জোনে নিয়ে আসা হয়। আগষ্টে ইটিগ্রেটেড ট্রায়াল রান শুরুর আশা করছে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ।

দুপুর তখন ১১টা ৫৩ মিনিট। রেললাইনে শোনা গেল মেট্রোরেলের প্রথম আগমনী বার্তা। কিছুক্ষণ পর দেখা গেল লাল সবুজে রাঙানো বহু আকাঙ্ক্ষার মেট্রোরেল।

গত ৩১ শে মার্চ মেট্রোরেলের প্রথম চালানে জাপান থেকে ৬ টি কোচ আসে দেশে। ১৯ ধরনের পরীক্ষা শেষে আয়োজন করা হয় ডেমো রানের।

সংক্ষিপ্ত অনুষ্ঠানে জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি বলেন, করোনার কারণে কিছুটা ধীরগতি আসলেও, এখন তা সামলে ওঠা গেছে। বাংলাদেশের প্রথম মেট্রোরেল প্রকল্পের সংযুক্ত হতে পেরে জাপান সরকার গর্বিত।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, মেট্রোরেলের মাধ্যমে বাংলাদেশ বৈদ্যুতিক ট্রেনের যুগে প্রবেশ করলো।

ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেড-ডিএমটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, প্রথম সেটের ছয়টি বগি রয়েছে। এগুলোর পরীক্ষামূলক চলাচল এ মাসেই শুরু হবে। আমরা সেজন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি।

এদিকে গত রবিবার জাপান থেকে দেশে পৌঁছেছে মেট্রোরেলের ২য় সেট। মোট ২৪ টি সেটে ৬ টি করে ১৪৪ টি কোচ থাকবে। যার মোট দাম পড়েছে ৪ হাজার ২৫৭ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। আর প্রকল্পের মোট ব্যয় প্রকল্পের মোট ব্যয় ২১ হাজার ৯৮৫ কোটি টাকা।