শেষ মুহূর্তের ঈদযাত্রায় সব পথেই স্বস্তি

57

খুশির ঈদ কাল। আগের দিন দুর্ভোগ নেই ঈদযাত্রায়। সোমবার (২ মে) সকাল থেকে ফাঁকা দুর পাল্লার বেশিরভাগ বাস। গাবতলীসহ রাজধানীর কোনো বাস টার্মিনালে যাত্রীদের ভিড়ও নেই। টিকিট বিক্রেতাদের দাবি, ঈদের ছুটি শুরু হওয়ার আগেই নগরবাসীর একটি বড় অংশ ঢাকা ছাড়ায় ভোগান্তি কম।
একইচিত্র কমলাপুরের রেলওয়েস্টেশনে। সোমবার নীলসাগর এক্সপ্রেস ছাড়া আন্তঃনগর ট্রেনগুলো প্লাটফর্ম ছেড়েছে সময় মেনে। কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ার ঈদ জামাত উপলক্ষে আগামীকাল থাকছে দুইজোড়া বিশেষ ট্রেন।

এদিকে তিন দিন ধরে শিমুলিয়া ঘাটে ঘরমুখো মানুষের উপচে পড়া ভিড় থাকলেও আজ অনেকটাই চাপ কমেছে শিমুলিয়া ঘাটে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভিড় কিছুটা বাড়লেও কাউকে ফেরির জন্য অপেক্ষা করতে হয়নি। এতে স্বস্তি নিয়ে ঘাট পার হন যাত্রী ও যানবাহনের চালকরা।
শিমুলিয়া ঘাটে দেখা গেছে, অর্ধশত ব্যক্তিগত গাড়ি ও শতাধিক পিকআপভ্যান পারাপারের জন্য অপেক্ষায় রয়েছে। এর আগে, মোটরসাইকেলের একটি সারি দেখা গেলেও সেগুলোকে একটি ফেরিতে করে পার করা হয়েছে।

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটও ফাঁকা। ঘাটে নেই যাত্রীর চাপ। ফেরিগুলো অপেক্ষা করছে যানবাহনের জন্য।