শরীয়তপুর জেল হত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

রুপক চক্রবর্তী শরীয়তপুর :
ঐতিহাসিক জেল হত্যা দিবস-২০১৯ উপলক্ষে শরীয়তপুরে জেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার (৩রা নভেম্বর) বিকাল ৪ঘটিকায় শরীয়তপুর সদরে অবস্থিত জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ে উক্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছাবেদুর রহমান খোকা শিকদারের সভাপতিত্বে এবং জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য, শরীয়তপুর জজ কোর্টের জিপি এড. আলমগীর হোসেন মুন্সি’র সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, শরীয়তপুর ১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু।

এসময় আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ শরীয়তপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, সাবেক সভাপতি আব্দুর বর মুন্সি, উপদেষ্টা ও সাবেক সহ সভাপতি নূর মোহাম্মদ কোতোয়াল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মির্জা হযরত আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক কামারুজ্জামান উজ্জ্বল, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার তালুকদার, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক শফি রাড়ি, জেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর মৃর্ধা, সাধারণ সম্পাদক নূহুন মাদবর, সহ সভাপতি গোলাম মোস্তফা, উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুস সালাম হাওলাদার, সদর উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সামিনা ইয়াসমিন, শরীয়তপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র ১ বাচ্চু বেপারী, পৌরসভা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আমীর হেসেন খান, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক সাংবাদিক কাজী নজরুল, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বিল্লাল হোসেন দিপু, সাধারন সম্পাদক হোসেন সরদার, পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর বেপারী, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক রাশেদুজ্জামান, ছাত্রনেতা আসাদুজ্জামান শাওন, সোহেল খন্দকার, সদর ছাত্রলীগের সাধারণ রাশেদুজ্জামান শিকদার, শরীয়তপুর সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সোহাগ বেপারী, সাধারণ সম্পাদক রাসেল জমাদ্দার, সদর পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম সোহান, সাধারণ সম্পাদক রাকিব হাসান সহ প্রমুখ।

সাংসদ ইকবাল হোসেন অপু বলেন, আমি মনে প্রানে বিশ্বাস করি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শ যদি কোন নেতার ভিতরে থাকে, জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শ যদি কোন নেতার ভিতরে থাকে তাহলে সে দূর্নীতি করতে পারে না, সে টাকার প্রতি বা অন্য কোন লোভের বশিভূত হতে পারে না। টাকা কামাই করা সহজ কিন্তু সম্মান অর্জন করা অনেক কঠিন। যারা বঙ্গবন্ধু সৈনিক যারা জননেত্রী শেখ হাসিনার সৈনিক তারা চাটুকারিতা করে না। আমি মনে প্রানে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শ বুকে ধারন করি। বঙ্গবন্ধুর সৈনিকেরা, জননেত্রী শেখ হাসিনার সৈনিককেরা পরাজয় মানে না। ইতিমধ্যে সারা বাংলাদেশে বিভিন্ন জেলা, উপজেলা, ইউনিয়নের কমিটি গঠন শুরু হয়েছে আমাদের দৃষ্টি রাখতে হবে যে কোন স্বাধীনতা বিরোধী, বিএনপি, জামাতের কেউ যাতে কমিটিতে স্থান না পায়। যারা রক্ত দিয়ে, জীবন দিয়ে, শ্রম দিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে বারবার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় এনেছে আজ অনুপ্রেবেশ কারীদের চাটুকারিতার কারনে তারা অবহেলিত। এসকল ত্যাগী নেতাদের অভিমান ভাঙ্গিয়ে তাদের ফিরিয়ে আনতে হবে।