শরীয়তপুরে জেলা প্রশাসন কতৃক অন্ত্যোষ্টিক্রিয়া সম্পাদনের জন্য ১০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন

রুপক চক্রবর্তী শরীয়তপুর :
সারাবিশ্ব বর্তমানে করোনা আতঙ্ক বিরাজমান। ইতিমধ্যে এ ভাইরাসের বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে। করোনা আতঙ্ক ভুগছে বাংলাদেশ সহ গোটা বিশ্ব। বর্তামান বর্তমানে কেউ যদি স্বাভাবিক ভাবে বা অন্য কোন রোগের ফলে ও মৃত্যুবরন করে তাহলে প্রাথমিক পর্যায়ে ধারনা করা হয় মনে হয় সে বুঝি করোনার কারনেই মারা গেছে। এ বিষয়ই বিবেচনায় নিয়ে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন কতৃক হিন্দু সম্প্রদায় অথাৎ হিন্দুধর্মালম্বী যদি কেউ করোনা ভাইরাসে বা করোনা ভাইরাস সন্দেহে মারা যায় তাহলে তার মরদেহ অন্ত্যােষ্টিক্রিয়া করার জন্য জেলার ৬ উপজেলায় ১০ সদস্য বিশিষ্ট ৬টি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৯ই এপ্রিল) দুপুরে জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের এর স্বাক্ষরিত এক চিঠির মাধ্যমে এ ঘোষনা দেওয়া হয়। হিন্দুধর্মালম্বী কেউ করোনা ভাইরাসে বা করোনা ভাইরাস সন্দেহে মারা যায় তাহলে তার মরদেহ অন্ত্যােষ্টিক্রিয়া করার জন্য যে কমিটি গঠন করা হয়েছে তাতে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা’র মনোনীত কর্মকর্তা আহবায়ক এবং ৯জন সদস্য রয়েছেন। সদস্যরা হলেন সংশ্লিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার মনোনীত কর্মকর্তা, সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার মনোনীত কর্মকর্তা, সংশ্লিষ্ট উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি, সংশ্লিষ্ট উপজেলার পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, সংশ্লিষ্ট উপজেলার হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্ঠান ঐক্য পরিষদের সভাপতি, সংশ্লিষ্ট উপজেলার হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্ঠান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, সংশ্লিষ্ট উপজেলার কেন্দ্রীয় মন্দির বা বড় মন্দিদের পুরোহিত, সংশ্লিষ্ট উপজেলার একজন গন্যমান্য হিন্দু ব্যাক্তি পুরুষ এবং একজন হিন্দু ব্যাক্তি মহিলা।