রোহিঙ্গাদের মোবাইল সেবা বন্ধের নির্দেশ

রোহিঙ্গাদের জন্য সব ধরণের মোবাইল সেবা বন্ধ হতে চলেছে। এ বিষয়ে জরুরী ব্যবস্থা নিতে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থাকে (বিটিআরসি) নির্দেশ দিয়েছেন। মোবাইল অপারেটরগুলোকে এ সংক্রান্ত চিঠিও পাঠিয়েছে বিটিআরসি।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার সারাবাংলাকে বলেন, ‘আমরা বহু আগে থেকেই অপারেটরগুলোকে অবৈধভাবে সিম বিক্রি বন্ধ করার কথা বলে আসছিলাম। আগে থেকেই নির্দেশনা ছিল। কিন্তু তারপরেও অন্যের নামে রোহিঙ্গারা সিম কিনে তা ব্যবহার করছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। তাই বিটিআরসিকে এ বিষয়ে জরুরি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।’

কিভাবে রোহিঙ্গাদের সিম ব্যবহার বন্ধ করা হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাই করে তা বের করা হবে। সে বিষয়ে আমাদের সক্ষমতা আছে।

অন্য এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ওই এলাকায় নেটওয়ার্ক বন্ধ করা হবে না। নেটওয়ার্ক বন্ধ মানে তো যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন। কারণ, ওই এলাকায় বাঙালিরাও রয়েছেন।

মন্ত্রীর নির্দেশের পর সাত কার্যদিবসের মধ্যে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কোনো সিম বিক্রি ও সিম ব্যবহার বন্ধে মোবাইল সুবিধা না দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে সব মোবাইল অপারেটরকে ১ সেপ্টেম্বর জরুরী নির্দেশ দিয়েছে বিটিআরসি।

বিটিআরসির চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা ও গুরুত্ব বিবেচনা, আইনশৃংখলা রক্ষা ও জনসুরক্ষার স্বার্থে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী যাতে মোবাইল সুবিধা না পায় এ বিষয়টি নিশ্চিত করতে আপনাদের সংস্থাগুলোকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু বিটিআরসির কমিশন থেকে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনকারী কমিটি, গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবর, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও গোয়েন্দা সংস্থার থেকে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ব্যাপক হারে সিম/রিম ব্যবহার সংক্রান্ত তথ্য পাওয়া গেছে।’

চিঠিতে আরও বলা হয়, ১ সেপ্টেম্বর থেকে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কোনো ধরণের সিম বিক্রি, রোহিঙ্গাদের সিম ব্যবহার বন্ধে তাদের মোবাইল সুবিধা না দেওয়া সংক্রান্ত সকল ব্যবস্থা নিশ্চিত করে বিটিআরসিকে অবহিতকরণে নির্দেশক্রমে অনুরোধ জানানো হলো। চিঠিটি সকল মোবাইল অপারেটরের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠানো হয়েছে।-সারাবাংলা