ময়মনসিংহে ১৪৫টি পরিবার পাচ্ছেন সরকারী বসত ঘর

ময়মনসিংহ
জেলায় জমি আছে ঘর নেই এমন ১৪৫টি দরিদ্র পরিবার পাচ্ছেন সরকারী ভাবে বসত ঘর। প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগ দুর্যোগসহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় দুর্যোগ ও ত্রাণ অধিদপ্তর এসব ঘর নির্মাণ করছে। ময়মনসিংহ জেলায় ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকারও বেশী ব্যয়ে গৃহগুলো নির্মাণ কার হচ্ছে বলে তথ্য জানিয়েছেন জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মোহাম্মদ হোসেন। তিনি বাসস’কে জানান, প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ২ লাখ ৫৮ হাজার টাকা।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ইচ্ছায় যাদের জমি আছে ঘর নেই দুর্যোগকালীন সময়ে নিবরাপদ মাথাগুজার ঠাঁই প্রদানের লক্ষ্যেই তালিকাভূক্তদের মাঝে বিনামূল্যে ঘর তৈরী করে দেয়া হচ্ছে। সারাদেশে প্রকল্পটি চলমান রয়েছে বলে সূত্রটি জানায়। যেসব ঘর নির্মাণ করা হচ্ছে তাতে দুটি শয়ন কক্ষ, বাথরুম, কিচেনসহ সামনে প্রশস্থ বারান্দা রয়েছে।
কাজের বিনিময়ে টাকা (কাবিটা) কর্মসূচির আওতায় ময়মনসিংহের ১৩টি উপজেলায় ১৪৫ ঘরের মধ্যে ৮৮টি ঘরের নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। বাকি গুলোর কাজ চলমান। মোট ১৪৫টি ঘরের মধ্যে ফুলবাড়িয়ায় ১২, ধোবাউরায় ১৩, গফরগাঁয়ে ১০, ভালুকা ৭, ঈশ্বরগঞ্চ ১২, তারাকান্দা ১২, হালুয়াঘাট ১১, নান্দাইল ১৩, মুক্তাগাছা ৯, গৌরীপুর ১১, ত্রিশাল ১০, ফুলপরে ১৩ ও ময়মনসিংহ সদরে ১২টি।
আগামী ১৩ অক্টোবর সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ৮৮ টি নির্মিত ঘর নির্বাচিত পরিবারের মাঝে হস্তান্তর করবেন বলে জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা জানান। এ ব্যপারে সকল প্রস্তুতিও সম্পন্ন হয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।-বাসস