ময়মনসিংহে মামলা তুলে না নেয়ায় কিশোরীকে অপহরণরে পর ফরে র্ধষণরে অভযোগ

ফারুক আহমেদ :
ময়মনসিংহে মামলা তুলে না নেয়ায় ১৫ বছরের এক কিশোরীকে অপহরণের পর ফের র্ধষণরে ঘটনার অভিযোগে আব্দুস সাত্তার (৫০) নামের একজনকে গ্রেফতার করছেে র‌্যাব।
মঙ্গলবার বিকেলে ময়মনসিংহ র‌্যাব-১৪ র্কাযালয় থকেে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্ততিে বিষয়টি জানানো হয় সোমবার বিকেলে সাড়ে ৪টার দিকে ফুলবাড়িয়া উপজেলার দেওখোলা নিজ গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি ফুলবাড়িয়য়া উপজেলার দেওখোলা গ্রামের সাবেক চেয়ারম্যান মৃত ওয়াজ উদ্দিনের ছেললে।
বিজ্ঞপ্ততিে জানানো হয়, গত ২১ ফব্রুয়ারি ওই কিশোরীকে অপহরণরে পর র্ধষণরে অভিযোগ পাওয়ার পর ২২ ফব্রেæয়ারি সকালরে দিকে আব্দুস সাত্তারকে আটক করা হয়। পরে তার দেয়য়া তথ্যের ভিত্তিতে কিশোরগঞ্জের ভৈরব থানার চন্ডীবড়ে মধ্য পাড়ার ময়নুল ইসলাম হিরন মোল্লার বাড়ি থেকে ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়। পরে আব্দুস সাত্তারকে গ্রেফতার দখোনো হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আব্দুস সাত্তার স্বীকার করনে, তিনি র্পূব শক্রুতার জেরে জোরর্পূবক ওই কিশোরীকে অপহরণ করনে এবং বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার র্ধষণ করনে।
এর আগে গত বছররে ৫ জুলাই ওই কিশোরীকে র্ধষণরে অভিযোগে ফুলবাড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করেন কিশোরীর বাবা। পরে ওই মামলায় পুলিশ আব্দুস সাত্তারকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায়। পরর্বতীতে সাত্তার জামিননে এসে কিশোরীর পরিবারকে মামলা তুলে নিতে হুমকি দনে। মামলা তুলে না নেয়ায় ওই কিশোরীকে ফের অপরণরে পর র্ধষণ করে কিশোরগঞ্জের ভৈরব থানার চন্ডীবড়ে মধ্য পাড়ার মো. ময়নুল ইসলাম হিরন মোল্লার বাড়িতে আটকে রাখনে।