ময়মনসিংহে বিয়ের ১১ দিন পর তালাক, স্ত্রীকে তুলে নিতে বোমা ফাটালেন স্বামী

58

ফারুক আহমেদ : ময়মনসিংহে তালাক হওয়ার পর স্ত্রীকে তুলে নিতে বাসার পাশে বোমা ফাটিয়েছেন কেএম নূহ পারভেজ (৩০) নামে এক যুবক। বাধা দিতে গেলে শ্যালকসহ দুজনকে ছুরিকাঘাত করেছেন তিনি। টের পেয়ে স্থানীয়রা পারভেজকে আটকের পর গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

আটক পারভেজ নগরীর গোহাইলকান্দি এলাকার অবসরপ্রাপ্ত কৃষি ব্যাংক কর্মকর্তা ইসরাফিল খানের ছেলে। পারভেজ এবং ছুরিকাঘাতে আহত দুজন বর্তমানে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। নগরীর মাসকান্দা গণশার মোড় এলাকায় বৃহস্পতিবার রাত ১১ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার বিকেলে ভুক্তভোগীর অভিভাবক পারভেজকে আসামি করে কোতোয়ালী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি শাহ কামাল আকন্দ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় বিস্ফোরক আইনে মামলা হয়েছে। আসামি চিকিৎসাধীন আছেন। সুস্থ হওয়ার পর রিমান্ড আবেদন করে আদালতে সোপর্দ করা হবে।

মামলার নথির বরাত দিয়ে ওসি বলেন, নগরীর মাসকান্দায় গণশার মোড় এলাকায় ভুক্তভোগী ও তার পরিবার বসবাস করে আসছেন। ঘটনার দিন রাত ১১টার দিকে বিকট শব্দে বোমা ফাটিয়ে বাসার দেয়াল টপকে ভেতরে ঢুকেন পারভেজ। এসময় ছুরি উঁচিয়ে সাবেক স্ত্রীকে তুলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। বাধা দিতে গেলে শ্যালকসহ দুজনকে ছুরিকাঘাত করেন। বোমার শব্দ ও বাসার ভেতর থেকে ডাক-চিৎকারে স্থানীয়রা এসে পারভেজকে ধরে ফেলে। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

জানা গেছে, গত ২ আগস্ট পারভেজের সঙ্গে ওই নারীর বিয়ে হয়। বিয়ের ১১ দিনের মাথায় জঙ্গি আচরণ ও মাদকাসক্তির কথা বলে স্বামীকে তালাক দেন স্ত্রী। এরপর থেকে পারভেজ তার ফেইসবুক আইডি থেকে স্ট্যাটাস ও মোবাইল ফোনে শ্বশুর বাড়ির লোকদের হুমকি দিচ্ছিলেন।