ময়মনসিংহে বাস-সিএনজি অটোরিক্সার সংঘর্ষে একই পবিবারের ৬জনসহ নিহত ৭

ফারুক আহমেদ :
ময়মনসিংহে বাসের ধাক্কায় একই পরিবারের এক শিশুসহ ছয়জন এবং জিএনজির চালকসহ সাতজন নিহত হয়েছে।
রবিবার দুপুরে ময়মনসিংহ-নেত্রকোনা সড়কের তারাকান্দা উপজেলার গাছতলা নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।
স্থানীয়,পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানাযায় রবিবার দুপুর একটার দিকে নেত্রকোনা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকা গামী শাহজালাল পরিবহনের একটি যাত্রীবাহি বাস ও ময়মনসিংহ শম্ভগঞ্জ ব্রিজের মোড় থেকে গৌরীপুর গামী একটি সিএনজি চালিত অটোরিক্সার সংঘর্ষ হয়। এতে অটোক্সিার যাত্রী শিশুসহ একই পরিবারের ৫জন ও অটোরিক্স্রার চালক ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে অপর একজন নিহত হয়।
নিহতরা হলেন-নেত্রকোনার জেলার পূর্বধলা উপজেলার আগ্যিয়া ইউনিয়নের ফেছুয়ালেঞ্জি গ্রামের নিজাম উদ্দিন (৪৫),ফারুক হোসেন (৩৫),জুলেকা খাতুন (৪৮), মাসুমা আক্তার (২৫), শিশু (৭দিন),রফিকুল ইসলাম (৩০) এবং অটোরিক্সার চালক সোহাগ মিয়ার (৩৫)। সোহাগ মিয়ার বাড়ি জেলার গৌরীপুর উপজেলায়। এর মধ্যে নিজাম উদ্দিন,ফারুক হোসেন ও জুলেকা খাতুন আপন ভাই-বোন,মাসুমা খাতুন ফারুক হোসেনের স্ত্রী এবং শিশু ফারুক হোসেনের সন্তান।
তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ গুলো শ্যামগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির সহযোগিতায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।