ময়মনসিংহে বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলনের আলোচনা সভা

গত ১৭ মার্চ, বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন ময়মনসিংহ জেলা শাখার উদ্যোগে ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে অবস্থিত জয়নুল আবেদীন পার্কে কেক কাটা, দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভার মাধ্যমে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিজুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী পালন করা হয়। আলোচনা সভা ও কেক কাটা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন ময়মনসিংহ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এটিএম মাহ্বুব-উল আলম এবং প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কৃষিবিদ ও বিশিষ্ট কলামিষ্ট নিতাই চন্দ্র রায়। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন ময়মনসিংহ জেলা শাখার সহ সভাপতি কামরুল ইসলাম এবং সাংবাদিক খন্দকার জাহাঙ্গির আলম সেলিম। নদী বিষয়ক ওই আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন ময়মনসিংহ জেলা শাখার নেতা মোস্তাফিজুর রহমান তালুকদার ও সেলিম আকন্দ। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর নিহত পরিবার বর্গের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত ও দেশের মঙ্গল কামনা করে দোয়া পরিচালনা করেন বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন , ময়মনসিংহ জেলা শাখার বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক এড্যাভোকেট এটিএম আহ্বুব-উল আলম ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিবিদ নিতাই চন্দ্র রায় বলেন, নদীর সাথে বাংলাদেশের নাড়ির সম্পর্ক।নদী না বাঁচলে বাংলাদেশ বাঁচবে না। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের গুরুত্বপূর্ণ স্লোগান ছিল- ‘আমার তোমার ঠিকানা পদ্মা ,মেঘনা যমুনা।’ নদীর সাথে দেশের কৃষি, মৎস্য চাষ, পরিবহন, পরিবেশ ও জীববৈচিত্র এবং হাজার হাজার মানুষের জীবন-জীবিকা জড়িত। এক শ্রেণীর প্রভাবশালী ও শিল্পপতি নামের লোভী মানুষ নদী দখল, দূষণ করে নদী হত্যার কাজে মেতে উঠছে। তাদের এই হীন প্রচেষ্টা স্বাধীনতা সংগ্রামের মতো গণ আন্দোলনের মাধ্যমে নস্যাত করে দিতে হবে।সভাপতির বক্তব্যে অ্যাডভোকেট এটিএম আমহ্বুব-উল আলম বলেন, বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলনের সুপারিশের আলোকে সরকার ময়মনসিংহের ঐতিহ্যবাহী ব্রহ্মপুত্র নদ খননের কাজ শুরু করেছে।সরকারের এ উদ্যোগকে আমার সাধুবাদ জানাই। কিন্তু নদী থেকে তোলা মাটি নদীর পাড়েই স্তুপীকৃত করে রাখা হচ্ছে, যা আসন্ন বর্ষার সময় আবার নদীতে জমা হতে পারে।তাই ত্রিশালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর স্থাপন করতে হবে এবং সেখানে ব্রহ্মপুত্রের নদের খনন করা মাটি ব্যবহার করার ব্যবস্থা নিতে হবে।
নিতাই চন্দ্র রায়
সদস্য
বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটি।