মৃত নারীকে গোসল করালেন ইউএনও সাদিয়া

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাবার পর বগুড়ার সোনাতলায় এক নারীর জানাজার গোসল করাতে এগিয়ে আসেনি এলাকার কেউ। এ খবর পেয়ে নিঃসন্তান ঐ নারীর মরদেহের গোসল করিয়েছেন উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা ( ইউএনও) সাদিয়া আফরিন।

মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) দিবাগত রাত ২টার দিকে উপজেলার জোড়গাছা ইউনিয়নের কুশাহাটা গ্রামে উপস্থিত হয়ে করোনায় মৃত নারীকে দাফনের জন্য গোসল করান ওই ইউএনও।

এলাকাবাসী জানায়, কুশাহাটা গ্রামের রিনা বেগম ও তার স্বামী মোতালেব হোসেন বেশ কিছুদিন যাবত করোনায় আক্রান্ত হয়ে গ্রামের বাড়িই চিকিৎসাধীন ছিলেন। মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) রিনা বেগমের অবস্থা গুরুতর হলে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে বিকেল ৩টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত রিনা বেগমকে বাড়িতে নিয়ে আসলে দাফনের গোসলের জন্য পরিবার পরিজনসহ এলাকার কেউ রাজি হচ্ছিলো না। খবরটি জানতে পেরে নিজ থেকেই স্বতঃস্ফূর্তভাবে গোসল করাতে এগিয়ে আসেন সোনাতলার ইউএনও সাদিয়া আফরিন। পরে জানাজা শেষে মৃতকে দাফন করা হয়। জানাজায় ১৫ জন অংশ নেন।

জানাজায় উপস্থিত ছিলেন সোনাতলা থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম রেজা, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কামাল হোসেন, জোড়গাছা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রোস্তম আলী মণ্ডল।

সোনাতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন বলেন, আমি লোকমুখে জানতে পারি করোনায় মৃত নারীকে কেউ জানাজার জন্য গোসল করাতে রাজি হচ্ছে না, মৃত নারীর কোনো সন্তানও নেই। তখন আমি সেখানে গিয়ে গোসল করিয়ে দেই। এটাকে আমি মানবিক দায়িত্ব বোধের জায়গা থেকেই এটি করেছি।