মুক্তাগাছায় শিয়ালের ফাঁদে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক ছাত্রীর মৃত্যু

মুক্তাগাছায় শিয়ালের ফাঁদে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক ছাত্রীর মৃত্যু।
ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় শিয়ালের ফাঁদে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। নিহত শিক্ষার্থীর নাম মর্জিনা আক্তার।
নিহত শিক্ষার্থী ওই গ্রামের আব্দুল জলিলের মেয়ে ও স্থানীয় একটি কওমী মাদ্রাসার শিক্ষার্থী।

জানা যায়, ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় উপজেলার রৌয়ারচর গ্রামে মুরগির ফার্মকে শিয়ালের হাত থেকে বাঁচাতে তৈরী করা বৈদ্যুতিক ফাঁদ তৈরী করা হয়।
গতকাল শুক্রবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মাদ্রাসাছাত্রী মর্জিনা আক্তার থানকুনি পাতার শাক তুলতে মুরগির খামার এলাকায় যায়। শাক তোলার একপর্যায়ে হঠাৎ বৈদ্যুতিক তারের সাথে জড়িয়ে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার রৌয়ারচর গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমান ও ইসলাম উদ্দিন নামে দুইব্যক্তি বাড়ির পাশে অপরিকল্পিতভাবে মুরগির খামার দিয়ে ব্যবসা করে আসছে। গত কিছুদিন ধরে খামারে শিয়ালসহ বন্যপ্রাণির উপদ্রব দেখা দেয়। খামার মালিক শিয়ালের উপদ্রব থেকে বাচাঁতে চারপাশে জিআই তার ঝুলিয়ে তাতে বিদ্যুতের সংযোগ দিয়ে ফাঁদ তৈরী করে রাখে।
এ ব্যাপারে মুক্তাগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) জাহাঙ্গীর আলম জানান, শিয়াল মারার জন্য তৈরী বৈদ্যুতিক ফাঁদে জড়িয়ে মেয়েটির মৃত্যু হয়েছে। মুরগি খামার মালিকের অবহেলার কারণে মেয়েটির মৃত্যু হয়েছে। মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।