মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক আটক

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে মাদ্রাসা শিশু শিক্ষার্থী ইয়ামিনকে মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষক ইয়াহিয়াকে আটক করেছে পুলিশ।
বুধবার (১০ মার্চ) বিকেলে, রাঙ্গুনিয়ার সাফরভাটা এলাকা থেকে ওই শিক্ষককে আটক করা হয় বলে জানান হাটহাজারী থানার ওসি রফিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় এখনও মামলা হয়নি। শিশুটির মা-বাবা মামলা করতে রাজি না হলে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করবে। শিশুটিকে মারধরের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে হাটহাজারী উপজেলার ইউএনও রুহুল আমিনের নেতৃত্ব মঙ্গলবার (৯ মার্চ) রাত রাত ২টার দিকে মাদ্রাসা থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। পরে ওই শিক্ষককে মাদ্রাসা থেকে বরখাস্ত করা হয়।
নির্যাতনের শিকার শিশুটির বাবা-মা অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা না নিতে চাওয়ায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছিলো।

প্রসঙ্গত, হাটহাজারীতে শিক্ষার্থী ইয়ামিনকে নির্মমভাবে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়লে প্রতিবাদের ঝড় উঠে। মায়ের কাছে যাওয়ার অপরাধে ওই শিক্ষার্থীকে পেটানো হয়। নির্যাতনের শিকার শিশু ইয়াসিন হাটহাজারীর পৌর এলাকার মারকাযুল কুরআন ইসলামিক একাডেমি মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী।