ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতাসহ গ্রেফতার ৭, অস্ত্র ও মাদক উদ্ধার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ময়মনসিংহ ৯ মে :
ময়মনসিংহ নগরীর চামড়াগুদাম পুরোহিতপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে যুবলীগ নেতা ইয়াসিন আরাফাত শাওনসহ ৭ যুবককে গ্রেফতার করেছেন র‍্যাব-১৪। এসময় তার বাসায় তল্লাশী চালিয়ে বিপুল পরিমাণ আগ্নে অস্ত্র, অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জাম ও মাদক উদ্ধার করা হয়। শাওন ময়মনসিংহ মহানগর যুবলীগের অন্যতম সদস্য বলে জানা গেছে।

শনিবার (৯ মে) বিকেলে র‌্যাপিড এ্যাকশান ব্যাটালিয়ান র‌্যাব-১৪ এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল এফতেখার উদ্দিন র‍্যাব কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এরআগে একইদিন ভোর রাতে নগরীর পুরোহিত পাড়া এলাকার নিজ বাসা থেকে শাওনসহ ৭ যুবককে গ্রেফতার করে র‌্যাবের একটি টিম।

র‌্যাব-১৪ অধিনায়ক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ নগরীর চামড়াগুদাম পুরোহিতপাড়া এলাকায় শাওনের বাসায় অভিযান করা হয়। এ সময় তার বাসায় তল্লাশী চালিয়ে দুটি পিস্তল, একটি রিভলবার, তিনটি ম্যাগাজিন, দুটি এক নালা বন্ধুক, অস্ত্র তৈরী এবং রক্ষনাবেক্ষনের সরঞ্জমাদি, স্নাইপিং রাইফেলের টেলিস্কোপিং সাইট, ৭ টি রাম দা, ৪ টি ছোড়া, ৩’শ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট ও একটি চাপাতি উদ্ধার কর হয়।

তিনি আরও জানান, গ্রেফতার কৃতরা যুবকরা হলেন, নগরীর পুরোহিত পাড়া এলাকার ইদ্রিস হোসেনের ছেলে ইয়াসিন আরাফাত শাওন (৩৬) ও মাসুদ পারভেজ (৩০), শেওড়া চামড়াগুদাম এলাকার মৃত ছাবু মিয়ার ছেলে রায়হান আহমেদ রাজীব (২৮), একই এলাকার মৃত জব্বার মিয়ার ছেলে মো. মানিক মিয়া (২৭), বাগানবাড়ি এলাকার আঃ গনির ছেলে হৃদয় আহমেদ রাজীব (১৮), চামড়াগুদাম এলাকার আলতাফ হোসেনের ছেলে মোঃ রাজীব (৩০), পুরোহিত পাড়া এলাকার মৃত মোখলেস আহম্মদের ছেলে বাপ্পি খান (৩৬)।

তিনি আরও জানান, গ্রেফতারকৃত আসামিরা জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেন, তারা এসব অস্ত্র মাদক চোরাচালান, ছিনতাই, ডাকাতি ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে ব্যবহার করতেন। তাদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানিয়েছেন র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।