মঙ্গল রহস্য উদ্ঘাটনের পথে, লাল গ্রহে আজ থেকে নামা শুরু তিন দেশের রোভারের

চির অজানা, রহস্যময় মঙ্গলগ্রহের পর্দা কি এবার ফাঁস হতে চলেছে? মঙ্গলে কি প্রাণের অস্তিত্ব আছে? আছে কি পানি? আজ মঙ্গলবার ভারতীয় সময় রাত নটায় সংযুক্ত আরব আমিরশাহির রোভার এর মঙ্গলে পৌঁছানোর কথা। মঙ্গলপৃষ্ঠে অবতরণ করবে এই আমিরি রোভার উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন ল্যাব নিয়ে। মনুষ্যবিহীন এই রোভার মঙ্গল থেকে পৃথিবীতে নিরন্তর ছবি পাঠাবে। এটিই প্রথম সংযুক্ত আরব আমিরশাহির প্রথম মহাকাশ অভিযান।

কাল, অর্থাৎ বুধবার মঙ্গলের মাটিতে নামার কথা চীন-তাইওয়ানের যুগ্ম প্রয়াসের রোভারটির। এটিও উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন। মঙ্গলের মাটিতে অবততরণের পর মনুষ্যবিহীন এই যান নানা গবেষণা চালাবে। ১৮ ফেব্রুয়ারি নাসার রোভার, যার নাম পারসাভিউয়ারেন্স, তা পৌঁছাবে মঙ্গলে।
এটিও মনুষ্যবিহীন যান। কিন্তু এটির গবেষণা শক্তি অনেক বেশি। আশা করা যায় নাসার এই রোভার মঙ্গলে পৌঁছানোর পর লাল গ্রহের অনেকটাই উন্মোচিত হবে পৃথিবীর কাছে।

৩ দেশের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র সমন্বয় সাধন করছে ৩ টি রোভারের মধ্যে। আমেরিকার নাসার রোভারটিতে আবার আছে মার্শিয়ান হেলিকপ্টার যা মঙ্গলের আকাশে চক্কর মারবে। জুলাই-এ যাত্রা শুরু করে ৪ কোটি ৭১ লাখ মাইল পাড়ি দিয়ে ৩ দেশের ৩ যান পৌঁছাচ্ছে মঙ্গলে। বিশ্বের আশা এবার মঙ্গল রহস্যের অবসান হবে।