ভালুকায় শ্রমিকদের বিক্ষোভে পুলিশের কাঁদানে গ্যাস, ট্রাক চাপায় নিহত ২

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ময়মনসিংহ :
ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার শিল্প এলাকায় বেতন ভাতার দাবিতে গার্মেন্টস শ্রমিকদের বিক্ষোভ চলাকালে পুলিশের সঙ্গে দাওয়া পাল্টা দাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও ফাঁকা গুলি ছোড়লে শ্রমিকরা দৌড়ে জীবন বাঁচানোর সময় ট্রাক চাপায় ২ জন নিহত হয়েছেন বলে স্থানীয় এলাকাবাসীর দাবি। এ ঘটনায় একাধিক শ্রমিক আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

সোমবার (৬ এপ্রিল) সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার জমিরদীয়া স্কয়ার মাস্টার বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তারা সবাই ওই এলাকার ক্রাউন এ্যাপারেল কোম্পানীর শ্রমিক ছিল বলে স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকাল থেকে বেতন ভাতার দাবি নিয়ে ক্রাউন এ্যাপারেল গার্মেন্টসের শ্রমিকরা বিক্ষোভ শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী পালন করছিল। খবর পেয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে আসে পরিবেশ শান্ত করতে। তখন শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ বাঁধে। এতে শুরু হয় ইটপাটকেল ছোড়াছুড়ি ও দাওয়া পাল্টা দাওয়া। পরে পরিবেশ নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ সময় জীবন বাঁচাতে শ্রমিকরা দৌড় দেওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা ময়মনসিংহগামী একটি ট্রাক দুজনকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই হারুন নামে একজন ও অজ্ঞাত আরও এক শ্রমিকসহ দুজন নিহত হয়।

এ বিষয়ে ভালুকা মডেল থানার ওসি মাঈন উদ্দিন জানান, দুটি ঘটনা আলাদা। সকাল থেকে স্কয়ার মাস্টার বাড়ি এলাকার ক্রাউন এ্যাপারেল গার্মেন্টসের শ্রমিকরা বেতন ভাতার দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করছিল। পরে খবর পেয়ে শিল্প পুলিশের টিম ঘটনাস্থলে যান। এ সময় শ্রমিকদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ বাঁধে। পরে পরিবেশ নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও ফাঁকা গুলি ছোড়ে। তখন শ্রমিকরা ছত্রভঙ্গ হয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার কিছুক্ষনের মধ্যেই ট্রাক চাপায় দুই শ্রমিক নিহত হন। তাদের মরদেহ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।