ভারতে বিষাক্ত গ্যাস ছেড়েছে চীন ও পাকিস্তান – আগারওয়াল

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে দূষণের মাত্রা প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে দুদিন আগেই দিল্লি সরকারকে ভর্ৎসনা করেছেন ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।

তবে দিল্লির এই দূষণের জন্য পাকিস্তান ও চীনকে দায়ী করছেন ক্ষমতাসীন দল বিজেপির নেতা বিনীত আগারওয়াল সারদার।

মেরঠে এক জনসভায় দেয়া ভাষণে উত্তরপ্রদেশের এই নেতার দাবি, ভারতে বিষাক্ত গ্যাস ছেড়েছে চীন ও পাকিস্তান। এজন্যই দূষণের মাত্রা বাড়ছে।

আগারওয়াল বলেন, আমাদের আশপাশের দেশ যারা ভারতকে ভয় পায় তারাই ভারতের ওপর বিষাক্ত গ্যাস ছাড়ছে। এগুলো গুরুত্ব দিয়ে খতিয়ে দেখা দরকার।

পরিবেশ দূষণ নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, জানুয়ারির পর এবারই প্রথম দিল্লিতে দম বন্ধ করা পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। গত রবিবার দিল্লির বাতাসে গুণমান সূচক ছিল ৬২৫।

একিউআই অনুযায়ী, ০ থেকে ৫০ ভাল। ৫১ থেকে ১০০ সন্তোষজনক। ১০১ থেকে ২০০ সাধারণ মানের। ২০১ থেকে ৩০০ খারাপ। ৩০১ থেকে ৪০০ খুব খারাপ। ৪০১ থেকে ৫০০ মারাত্মক খারাপ বলে ধরা হয়। সে হিসেবে বর্তমানে দিল্লিতে বায়ুদূষণ অতি বিপজ্জনক মাত্রাও ছড়িয়ে গেছে।

দেশটির সর্বোচ্চ আদালত বলছেন, এ পরিস্থিতি যে সরকারের কারণেই হয়ে থাকুক তাতে আমাদের কিছু আসে যায় না। শিশু থেকে যুবক ও বৃদ্ধ, সবাই অসুস্থ হয়ে পড়েছে। কেন কৃষকরা খড় জ্বালাচ্ছে? এমন কর্মকাণ্ডের জন্য জরিমানার বিধান থাকলেও সরকার কেন নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না? এভাবে বসে থাকা যায় না।