বিএনপি’র নেতা ইঞ্জিঃ শামছুউদ্দিন না ফেরার দেশে

মাসুদ রানা, ময়মনসিংহ :
বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি, ফুলবাড়িয়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও ময়মনসিংহ-৬ (ফুলবাড়িয়া) আসনের দুইবার নির্বাচিত সাবেক জাতীয় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার শামসুদ্দিন আহমেদ (৮৫) ইন্তেকাল করেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

শুক্রবার (৮ মে) বিকাল ৫ টায় ঢাকা রাজধানীর নিজ বাসভবনে তার মৃত্যু হয়। তিনি বার্ধক্যজণিত রোগে কিছুটা অসুস্থ্য ছিলেন। গত কয়েকদিন ধরে জ্বর, শ্বাসকষ্ট ছিল। গতকাল শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে রাজধানীর বেশ কয়েকটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কোথাও চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেনি। পরে বিকেলে রাজধানীর গ্রীণরোডের নিজ বাসভবনেই তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে, নাতি,নাতনিসহ আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে ফুলবাড়িয়াবাসির মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে।

ইঞ্জিনিয়ার শামছউদ্দিন আহমদ বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের চীফ ইঞ্জিনিয়ার থাকা অবস্থায় অবসরে গিয়ে বিএনপিতে যোগদান করেন। তিনি ১৯৯৬ সালে ময়মনসিংহ-৬ (ফুলবাড়িয়া) আসনে ষষ্ঠ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ধানের শীষ নিয়ে এবং অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। বিগত সংসদ নির্বাচেনও তিনি বিএনপির মনোনীত প্রার্থী হয়ে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্ধিতা করেন। তাঁর পিতা মরহুম মৌলভী শাহাবুদ্দিন আহামদ ফুলবাড়িয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। মরহুমের বণার্ঢ্য রাজনৈতিক জীবনে ফুলবাড়িয়ায় সড়ক যোগাযোগ ও একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। ৯ মে শনিবার ফুলবাড়িয়া উপজেলার আছিম বাঁশদি গ্রামের বাড়িতে মরহুমের নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে দলীয় সূত্র জানা গেছে।

বর্ষিয়ান নেতা ইঞ্জিনিয়ার শামসুদ্দিন আহমেদের মৃত্যুতে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক ডা. মাহবুবুর রহমান লিটন, যুগ্ম-আহবায়ক জাকির হোসেন বাবলু, মহানগর বিএনপির আহবায়ক অধ্যাপক এ কে এম শফিকুল ইসলাম ও যুগ্ম-আহবায়ক আবু ওয়াহাব আকন্দসহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। নেতৃবৃন্দ পৃথক শোক বার্তায় মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।