বাংলাদেশ-ভারত টেস্টে প্রধানমন্ত্রীকে মোদীর আমন্ত্রণ

কলকাতায় আগামী ২২ নভেম্বর শুরু হতে যাওয়া বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট ম্যাচের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ফলে প্রধানমন্ত্রীর এই সফর রাষ্ট্রীয় সফর হিসেবেই বিবেচিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন। প্রধানমন্ত্রীর দুবাই সফরের বিষয়ে জানাতে বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। দুবাই এয়ার শোতে অংশ নিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৬-১৯ নভেম্বর দেশটি সফর করবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেন বলেন, “বুধবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে কলকাতা টেস্টের উদ্বোধনী পর্বে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি থাকার কারণে মোদী সেই অনুষ্ঠানে থাকতে পারবেন না বলেও চিঠিতে জানিয়েছেন। ফলে এই সফরটি রাষ্ট্রীয় সফর হিসেবে বিবেচিত হবে। প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গীরা রাষ্ট্রীয় অতিথির মর্যাদায় সে দেশে যাবেন।”

আগামী ২২ নভেম্বর কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট ম্যাচটি শুরু হবে। দিবা-রাত্রির এই ম্যাচ খেলা হবে গোলাপি বলে। ইডেন টেস্ট উপভোগ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আগেই আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। প্রধানমন্ত্রী সেখানে যাওয়ার ইচ্ছাও প্রকাশ করেছিলেন।

গত ২৯ অক্টোবর গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে শেখ হাসিনা বলেন, “সৌরভ গাঙ্গুলী বাঙালি ছেলে। ভালো ক্রিকেটার ছিল। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডে এই প্রথম কোনো বাঙালি সুযোগ পেল।… ফোন করেছিল, আমাকে দাওয়াত দিল যে আমি যেন যাই এবং খেলার শুরুতে যেন একটু থাকি। আমি রাজি হয়ে গেলাম।

“এটা কিন্তু প্রাইম মিনিস্টারের দাওয়াত না, মুখ্যমন্ত্রীরও দাওয়াত না। সৌরভ গাঙ্গুলী দাওয়াত দিয়েছে, আমি বলেছি আমি আসব।… তাদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটা দেখব, তারপর বিকালে চলে আসব। এইটুকুই ব্যাপার।”

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের পর বৃহস্পতিবার ইন্দোরে শুরু হয়েছে ভারত-বাংলাদেশ প্রথম টেস্ট।