বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) শিক্ষকের হাত বিচ্ছিন্ন ফুলপুরে বাসের জানালায় ট্রাকের ঘষায়

84
বাংলাদেশ কৃষি

মোঃ খলিলুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) শিক্ষক হাসান মোহাম্মদ মোর্শেদ ময়মনসিংহের ফুলপুরে চলন্ত বাসের জানালায় বেপোরোয়া ট্রাকের ঘষায় হাত হারিয়েছেন  তিনি বাকৃবির পশুবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক।

বৃহস্পতিবার রাতে ময়মনসিংহ-শেরপুর সড়কের ফুলপুর উপজেলার বাশাটি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনার শিকার হন ওই শিক্ষক। বর্তমানে তিনি রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন।

ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, আহত হাসান মোর্শেদ তার কর্মস্থল বাকৃবি থেকে বাসে করে শেরপুরে যাচ্ছিলেন। অসাবধানতাবশত ডান হাতটি তিনি জানালার বাইরে রেখেছিলেন। ফুলপুরের বাশাটি এলাকায় যেতেই বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগামী একটি ট্রাক বাসের জানালায় ঘষা দিয়ে চলে যায়। এতে তার হাতটি সঙ্গে সঙ্গে রাস্তার পাশে পড়ে যায়।

পরে বাসটি নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে গিয়ে চালক পালিয়ে যান। ওসি আরও জানান, আহত শিক্ষককে নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

পরে সেখান থেকে রাতেই বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) শিক্ষক হাসান মোহাম্মদ মোর্শেদ ঢাকার ল্যাবএইড হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাতের বিচ্ছিন্ন অংশ সংগ্রহ করে হাসপাতালে যাওয়ার সময় শিক্ষকের সঙ্গে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেয় পুলিশ।

আহত হাসান মোর্শেদ তার কর্মস্থল বাকৃবি থেকে বাসে করে শেরপুরে যাচ্ছিলেন। অসাবধানতা বশত ডান হাতটি তিনি জানালার বাইরে রেখেছিলেন। ফুলপুরের বাশাটি এলাকায় যেতেই বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগামী একটি ট্রাক বাসের জানালায় ঘষা দিয়ে চলে যায়। এতে তার হাতটি সঙ্গে সঙ্গে রাস্তার পাশে পড়ে যায়।

পরে বাসটি নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে গিয়ে চালক পালিয়ে যান। ওসি আরও জানান, আহত শিক্ষককে নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

পরে সেখান থেকে রাতেই তাকে ঢাকার ল্যাবএইড হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাতের বিচ্ছিন্ন অংশ সংগ্রহ করে হাসপাতালে যাওয়ার সময় শিক্ষকের সঙ্গে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেয় পুলিশ।

পরে বাসটি নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে গিয়ে চালক পালিয়ে যান। ওসি আরও জানান, আহত শিক্ষককে নকলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

পরে সেখান থেকে রাতেই তাকে ঢাকার ল্যাবএইড হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাতের বিচ্ছিন্ন অংশ সংগ্রহ করে হাসপাতালে যাওয়ার সময় শিক্ষকের সঙ্গে দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেয় পুলিশ।