ফ্রান্সে একদিনেই ১৩শ মৃত্যু

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের ভয়াল ছোবলে ফ্রান্সে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১ হাজার ৩শ ৫৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ইউরোপের দেশটিতে মৃতের সংখ্যা মোট ৫ হাজার ৩শ ৮৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃতের দেশ ফ্রান্স-ই। মহামারি করোনাভাইরাসে একই সময়ে সর্বোচ্চ আক্রান্তের ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে একদিনে প্রায় ১০ হাজার মানুষের শরীরে করোনার উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে।

আক্রান্তের দিক থেকে প্রথমে রয়েছে শক্তিধর এ দেশটি। মোট আক্রান্ত হয়েছে ২ লাখ ৪৩ হাজার ৯৭২ জন। করোনায় সেখানে একদিনে মারা গেছে ৭শ জনেরও বেশি। মোট মৃত্যু ৫ হাজার ৮শ ৮৩ জন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যমতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ফ্রান্সের পর সবচে বেশি মৃত্যু হয়েছে ইউরোপের আরেক দেশ স্পেনে। সেখানেও বৃহস্পতিবার প্রায় ১ হাজার জনের মত প্রাণ হারিয়েছে। করোনায় দেশটিতে এ পর্যন্ত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১০ হাজার ৩শ ৪৮ জন মারা গেছে।

মহামারী করোনায় সবচে বেশি প্রাণ হারিয়েছে ইতালিতে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছে প্রায় ১৪ হাজার। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর মিছিলে যোগ দিয়েছে সাড়ে ৭ শ জন। আক্রান্তের দিকে যুক্তরাষ্ট্রের পর রয়েছে ইউরোপের এ দেশ। আক্রান্তের সংখ্যা মোট ১ লাখ ১৫ হাজার ২শ ৪২ জনে দাঁড়িয়েছে।

এদিকে সুস্থ হওয়ার সংখ্যায় সবার ওপরে রয়েছে চীন। বিশ্বজুড়ে দুই লাখ ৮ হাজার ৯৪৯ জন সুস্থ হয়েছেন। এর মধ্যে চীনে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭৬ হাজারেরও বেশি মানুষ।

স্পেনে সুস্থ হয়েছেন সাড়ে ২৬ হাজারের বেশি মানুষ। জার্মানিতে ২১ হাজার ৪০০ জন, ইতালিতে ১৮ হাজার ২৭১ ও ইরানে ১৬ হাজার ৭১১ জন।