ফেরিঘাটে এবার আনসার মোতায়েন

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে ঘরমুখো মানুষের যাতায়াত ঠেকাতে গত শনিবার (৮ মে) সন্ধ্যার পর থেকে মুন্সীগঞ্জ ও মানিকগঞ্জের ফেরিঘাটে বিজিবি মোতায়েন করা হয়। এর তিনদিন পর মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ফেরিঘাটে ঘরমুখো মানুষ ও গাড়ির চাপ নিয়ন্ত্রণে এবং আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এবার আনসার মোতায়েন করা হয়েছে।

সোমবার (১০ মে) বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উপ-পরিচালক (যোগাযোগ) মেহেনাজ তাবাসসুম রেবিন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিকেলে মেহেনাজ তাবাসসুম রেবিন বলেন, জেলা প্রশাসকের চাহিদার প্রেক্ষিতে বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে রোববার (৯ মে) রাতেই শিমুলিয়া ঘাটে আনসার সদস্য মোতায়েন করা হয়। ঘাটে ঈদকেন্দ্রিক মানুষের চাপ না কমা পর্যন্ত আনসার সদস্যরা মোতায়েন থাকবেন।

এর আগে শনিবার বিজিবি সদর দফতরের পরিচালক (অপারেশন) লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়জুর রহমান জানান, করোনা সংক্রমণ রোধে সরকারঘোষিত বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে ঈদে ঘরমুখো মানুষের চাপ সামাল দিতে ফেরিঘাটে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) মোতায়েন করা হয়।

এর আগে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে শনিবার (৮ মে) থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া, শিমুলিয়া-বাংলাবাজারসহ সকল ফেরিঘাটে দিনের বেলায় সব ধরনের ফেরি চলাচল বন্ধের ঘোষণা দেয়া হয়। শুধুমাত্র রাতের বেলায় পণ্যবাহী পরিবহন পারাপারের জন্য ফেরি চলাচল করতে পারবে বলে জানানো হয়।

শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) চেয়ারম্যান সৈয়দ মো. তাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।