ফুলপুরে ১১ দিন রাস্তার পাশে পরে থাকা অসুস্থ বৃদ্ধাকে উদ্ধার করলো স্বেচ্ছাসেবকরা

মোঃ খলিলুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলা সদরে ঢাকা- শেরপুর মহাসড়কের পাশে কাকলি রাইস মিল সংলগ্ন স্থানে ১১ দিন পরে থাকা অসুস্থ পরিচয়হীন এক বৃদ্ধাকে প্রায় মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেছে যুব রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবকরা। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বর্তমানে বৃদ্ধা মহিলা ফুলপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। সে কোন কথা বলতে পারছে না।

যুব রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবক ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ফুলপুর উপজেলার ঢাকা- শেরপুর মহাসড়কের পাশে কাকলি রাইস মিল এর সামনে প্রায় ১১ দিন যাবৎ অসুস্থ এক বৃদ্ধ মহিলা পরে ছিল। সে নিজের নাম ঠিকানাও বলতে পারেনি। গত কয়েকদিন স্থানীয় মানুষের দেয়া সামান্য খাবার খেলেও ২ দিন যাবৎ কোন খাবার খাচ্ছে না। খাবার না খাওয়ার ফলে সে বেশি অসুস্থ হয়ে পরে। বৃদ্ধা মহিলার অবস্থা খারাপ দেখে এলাকাবাসী ফুলপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শীতেষ চন্দ্র সরকারকে জানান। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে যুব রেড ক্রিসেন্ট ফুলপুর এর স্বেচ্ছাসেবকরা বৃহস্পতিবার গভীর রাতে তাকে সঙ্গাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে স্টেচারে নিয়ে ফুলপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। হাসপাতালে ভর্তির পর অাবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ প্রাণেশ চন্দ্র পন্ডিত তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। বর্তমানে সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এখন পর্যন্ত বৃদ্ধা মহিলার কোন পরিচয় পাওয়া যায়নি।

যুব রেড ক্রিসেন্ট ফুলপুর প্রধান তাসফিক হক নাফিও জানান, বৃদ্ধা মহিলাটি ১১ দিন যাবৎ রাস্তার পাশে পরে ছিল। করোনা ভাইরাসের ভয়ে কেউ কাছে যায়নি। ইউএনও স্যারের নির্দেশে আমরা সঙ্গাহীন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করি। সে কোন কথা বলতে পারছে না।বর্তমানে স্যালাইন দেওয়া অাছে, স্বেচ্ছাসেবকরা সার্বক্ষণিক তাঁর খোঁজ খবর নিচ্ছেন।
অাবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ প্রাণেশ চন্দ্র পন্ডিত বলেন, না খাওয়ার কারণে মহিলাটি প্রচুর দুর্বল। অনেকটা মানসিক ভাবেও সে অসুস্থ্য মনে হচ্ছে। সঠিক ভাবে কোন কথা বা নাম পরিচয় বলতে পারছে না। মাঝে মাঝে একটু কথা বলতে চাইলেও তা বুঝা যাচ্ছেনা।