ফুলপুরে ১০ ইউপিতে নৌকার ৫ ও স্বতন্ত্র ৫ চেয়ারম্যান বিজয়ী

56

মোঃ খলিলুর রহমান :
ময়মনসিংহের ফুলপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সোমবার (৩১ জানুয়ারি) সম্পন্ন হয়েছে। এবারের নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের মনোনিত নৌকা নিয়ে ৫ জন ও স্বতন্ত্র ৫ জন চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া নির্বাচন ছিল শান্তিপূর্ণ। সকল কেন্দ্রেই ছিলো ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি। সকাল থেকেই পুরুষ-মহিলা ভোটাররা কেন্দ্রে এসে লাইন ধরে নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন। ভোটারদের মাঝে ছিল উৎসবের আমেজ । এবার ফুলপুরের ১০ ইউনিয়নের সবকটিতে ইভিএম এ ভোট গ্রহণ হয়েছে। ফুলপুর উপজেলার ১০ ইউনিয়নে মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১০৫ টি। মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা ৬২৭ টি। সর্বমোট ভোটার ২ লাখ ৩৮ হাজার ৮৬২ জন।মোট পুরুষ ভোটার ১ লাখ ২১ হাজার ২৭৭ জন, মোট মহিলা ভোটার ১ লাখ ১৭ হাজার ৫৮৪ জন, হিজড়া ভোটার ১ জন। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ৫২ জন প্রার্থী। সাধারন আসনে সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ৪১৪ জন প্রার্থী এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ১১৭ জন প্রার্থী।

চেয়ারম্যান পদে বেসরকারি ভাবে ঘোষিত ফলাফলে বিজয়ীরা হলেনঃ-
১ নং ছনধরা ইউনিয়নে মোঃ আবুল কালাম আজাদ নৌকা ৭৩৭৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ আব্দুস সালাম স্বতন্ত্র আনারস প্রতিক ৭৩০১ ভোট পেয়েছেন।
২ নং রাভদ্রপুর ইউনিয়নে মোঃ রোকনুজ্জামান রোকন (স্বতন্ত্র) আনারস প্রতিক নিয়ে ৬০০৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ দুদু মিয়া নৌকা প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ৫১৭৮ ভোট ।
৩ নং ভাইটকান্দি ইউনিয়নে আলাউদ্দিন আহমদ নৌকা প্রতিক নিয়ে ৭৬৪৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ নাজমুল ইসলাম রিপন স্বতন্ত্র ঘোড়া প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ৪৯৫৬ ভোট।
৪ নং সিংহেশ্বর ইউনিয়নে মোঃ শাহা আলী নৌকা প্রতিক নিয়ে ৯২৫০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ আমিনুল ইসলাম তালুকদার স্বতন্ত্র চশমা প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ৪৪৬১ ভোট।
৫ নং ফুলপুর ইউনিয়নে মোঃ রেজাউল হক ফকির রাসেল স্বতন্ত্র আনারস প্রতিক নিয়ে ৩৭৮৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোঃ মাদিউর রহমান স্বতন্ত্র মোটরসাইকেল প্রতিক নিয়ে ৩৬৬৩ ভোট পেয়েছেন।
৬ নং পয়ারী ইউনিয়নে মোঃ মফিজুল ইসলাম স্বতন্ত্র আনারস প্রতিক নিয়ে ৪০৯১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এনামুল কবির নৌকা প্রতিক নিয়ে ২২২১ ভোট পেয়েছেন।
৭ নং রহিমগঞ্জ ইউনিয়নে মোঃ শেখ একরাম হোসেন চৌধুরী স্বতন্ত্র ঘোড়া প্রতিক নিয়ে ৮৬৯৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামী আন্দোলনের মোঃ শামছুল আলম হাতপাখা প্রতিক নিয়ে ৪৭৩৪ ভোট পেয়েছেন।
৮ নং রূপসী ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনিত শাহ সুলতান চৌধুরী নৌকা প্রতিক নিয়ে ৮৩৫০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী শাকিল আহম্মেদ আনারস প্রতিক নিয়ে ৩৩১৯ ভোট পেয়েছেন।
৯ নং বালিয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনিত দেলোয়ার মোজাহীদ নৌকা প্রতিক নিয়ে ১০৭১১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী সোহেল আকন্দ ঘোড়া প্রতিক নিয়ে ১৫৩৫ ভোট পেয়েছেন।
১০ নং বওলা ইউনিয়নে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ মাহবুব আলম আনারস প্রতিক নিয়ে ৩৮৯০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী খান মোঃ হামিদুল্লাহ বিন মিনহাজ মোটরসাইকেল প্রতিক নিয়ে ২৭৯৩ ভোট পেয়েছেন।