ফুলপুরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে পৌর কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে মামলা

98

মোঃ খলিলুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
ময়মনসিংহের ফুলপুরে স্কুলছাত্রীকে (১৫) জন্ম নিবন্ধনের কাগজ দেয়ার কথা বলে এক বাসায় নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে পৌরসভার নির্বাচিত কাউন্সিলর এহসানুল হকের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার রাতে ফুলপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের হয়েছে। এহসানুল হক উপজেলার চড়পাড়া গ্রামের আঃ হাই এর ছেলে।

অভিযোগে জানা যায়, বাবা ঢাকায় পোষাক কারখানায় চাকুরী করায় এবং মা ওমান প্রবাসি হওয়ায় ফুলপুর পৌর এলাকার চড়পাড়া গ্রামে নানার বাড়ীতে থেকে গ্রামাউস মডেল একাডেমীতে ৮ম শ্রেণীতে লেখাপড়া করেন জনৈকা ছাত্রী (১৫)। গত ২১ নভেম্বর সকালে ঐ ছাত্রী মামীকে নিয়ে নিজের জন্ম নিবন্ধন ঠিক করতে ফুলপুর পৌরসভা কার্যালয়ে গিয়ে ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এহসানুল হকের সাথে দেখা করেন। তখন জন্ম নিবন্ধনের কাগজ বাসায় আছে বলে এহসানুল হক ছাত্রীকে মোটরসাইকেলে উঠতে বলে। সরল বিশ্বাসে ঐ ছাত্রী মোটরসাইকেলে উঠলে কাউন্সিলর তাকে গোদারিয়া গ্রামের জনৈক সহিদ মিয়ার বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে তাকে কুপ্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় কাউন্সিলর এহসাসুল হক জন্ম নিবন্ধনের জন্য আসা ছাত্রীটিকে জোর পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। তখন ছাত্রীর ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন আসতে থাকলে এহসানুল হক দ্রুত পালিয়ে যায়। এব্যাপারে ভূক্তভোগী ছাত্রী বাদী হয়ে পৌর কাউন্সিলর এহসানুল হকের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(৪) (খ) ধারায় মঙ্গলবার রাতে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং- ১(১২)২১।

ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আসামী গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।