ফুলপুরে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন: রবিবার থেকে পাঠদানের অপেক্ষায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

মোঃ খলিলুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
করোনায় দেড় বছরের অধিক সময় বন্ধ থাকার পর রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) খুলতে যাচ্ছে স্কুল-কলেজ ।সব মহলের দাবি আমলে নিয়ে বন্ধ লেখাপড়ার ক্ষতি আর দীর্ঘায়িত না করে ক্লাস চালুর সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষা প্রশাসন। দীর্ঘদিন পর স্কুল-কলেজ খোলার খবরে আনন্দিত ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা। তাই স্বাস্থ্যবিধির কথা মাথায় রেখে ইতিমধ্যে উপজেলার কলেজ, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষ পাঠদানের জন্য উপযোগী করা হয়েছে।বাস্তবতা বিবেচনায় সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ক্লাসের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে অভিভাবক, শিক্ষার্থী, শিক্ষক, মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তার জন্য নির্ধারিত দায়িত্ব যথাযথ পালন করতে হবে। ক্লাস চালুর পরও প্রতিদিন করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি পর্যালোচনা করবে প্রশাসন। কোথাও সংক্রমণের নির্দিষ্ট সূচকে ঝুঁকি চিহ্নিত হলে সেখানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা কিংবা বন্ধ করা, সংক্রমণের হার নিয়ে যে কোনো গুজবে কান না দিয়ে সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বান জানিয়েছে শিক্ষা প্রশাসন।

সরেজমিন ফুলপুর উপজেলার কয়েকটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, আঙিনা পরিস্কার -পরিচ্ছন্নতাসহ পাঠদানের উপযোগি করে রাখা হয়েছে বিদ্যালয়গুলো। শিক্ষক-কর্মচারীরা অফিস করছেন। চেয়ার-টেবিল, ব্রেঞ্চ, মেঝে ধোয়া-মোছার কাজও শেষ । স্বাস্থ্যবিধি মেনে পাঠদানের জন্য মাস্ক, হ্যান্ডস্যানিটাইজারসহ নানা উপকরণ প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

ফুলপুর উপজেলা সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আব্দুস ছালাম ও সাধারন সম্পাদক গোলাম কবির দিদার জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে শ্রেণিকক্ষে পাঠদানের জন্য সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে মাস্ক, হ্যান্ডস্যানিটাইজার, জীবাণুনাশক স্প্রে, তাপমাত্রা মাপক যন্ত্রসহ প্রয়োজনীয় উপকরণ কেনা সম্পন্ন করা হয়েছে।

কয়েকজন অভিভাবকের সাথে কথা হলে তারা বলেন, ‘মহামারি করোনায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় সন্তানের ভবিষ্যত নিয়ে শংকিত ছিলাম। এখন স্কুল-কলেজ খোলার খবরে স্বস্তি পাচ্ছি।
’কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন, অনেকদিন স্কুলে যেতে না পারায় খুব খারাপ লেগেছে। এখন ১২ তারিখে স্কুল খোলার কথা শুনে আমাদের খুব আনন্দ লাগছে ।’

উপজেলা একাডেমীক সুপারভাইজার পরিতোষ সূত্রধর বলেন, স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে ১২ সেপ্টেম্বর থেকে পাঠদানের লক্ষে সকলপ্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। রবিবার শিক্ষার্থীদের স্কুলে বরণ করে স্বাস্থ্য বিধি নিশ্চিত করেই পাঠদান করানো হবে। ক্লাস চালুর পরও প্রতিদিন করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি পর্যালোচনা করবে কর্তৃপক্ষ।