ফুলপুরে লকডাউন নিশ্চিতে মাঠে নেমেছে প্রশাসন,  ৮ জনকে জরিমানা

মোঃ খলিলুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
ময়মনসিংহের ফুলপুরে লকডাউন শতভাগ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে  মাঠে নেমেছে প্রশাসন। এসময় সরকারী আদেশ অমান্য ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ৮ জনকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। 
ফুলপুরে সোমবার ১ম দিন লকডাউন নিশ্চিত করার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আতাউল করিম রাসেল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শীতেশ চন্দ্র সরকার, পৌর মেয়র শশধর সেন, ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইমারত হোসেন গাজীর নেতৃত্বে প্রশাসন মাঠে নেমেছে। সকাল থেকে তারা ফুলপুর বাসস্ট্যান্ড ও আমুয়াকান্দা বাজারসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে খোলা দোকান ও শপিংমল বন্ধ করে দেন এবং স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করে বেচা কেনার জন্য বিভিন্ন ওষধের দোকানের সামনে রং দিয়ে গোল বৃত্ত তৈরি করে দেন। এসময় তারা লকডাউন নিশ্চিতে সরকারী আদেশ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে ব্যাপক প্রচারণা চালান।
সেই সাথে ফুলপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শীতেষ চন্দ্র সরকার ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে সরকারী আদেশ অমান্য ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে ১৮৬০ সালের দন্ডবিধির ২৬৯ ধারায় বাস, সিএনজি অটোরিক্সা, অটোর ৮জন চালককে ৮ হাজার ৮শত টাকা জরিমানা করেন। সেই সাথে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশ প্রদান করা হয় এবং ভবিষ্যতের জন্য কয়েকজনকে  সর্তক করা হয়। এসময় সহযোগিতা করেন ফুলপুর থানা পুলিশ ও যুব রেড ক্রিসেন্টের স্বেচ্ছাসেবকগণ।

  ফুলপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শীতেষ চন্দ্র সরকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আইন প্রয়োগের পাশাপাশি জনসচেতনতার কোন বিকল্প নেই। তবে  করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মানুষ সরকারী আদেশ ও স্বাস্থ্যবিধি না মানলে এবং মাস্ক না পড়লে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা বাড়ানোসহ আরও কঠোর ব্যাবস্থা নেয়া হবে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।