ফুলপুরে যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যা অভিযোগ, স্বামী আটক

মোঃ খলিলুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধি :
ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলায় যৌতুকের জন্য নির্যাতন চালিয়ে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার ভাইটকান্দি ইউনিয়নের ভাইটকান্দি পূর্বপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

নিহত নারীর নাম সুফিয়া বেগম (২১)। তিনি এক সন্তানের মা ছিলেন। এ ঘটনায় তার স্বামী আবু সাঈদ বাবুকে আটক করেছে ‍পুলিশ।

পারিবারিক সূত্র জানায়, ফুলপুর উপজেলার ভাইটকান্দি পূর্বপাড়া গ্রামের বদরুল আমিনের পুত্র আবু সাঈদ বাবুর সাথে প্রায় ৩ বছর আগে পার্শ্ববর্তী নকলা উপজেলার দরিতেঘড়ি গ্রামের জহির উদ্দিনের মেয়ে সুফিয়া বেগম (২১)এর বিয়ে হয়। তাদের সংসারে ৯ মাসের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। স্বামীর আবু সাঈদ বাবু প্রায় সময়ই যৌতুকের জন্য স্ত্রী সুফিয়া বেগমকে মারপিট করতো। বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারী) বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে যৌতুক নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে কথাকাটাকাটি হয়। এর এক পর্যায়ে স্বামী আবু সাঈদ ১ সন্তানের জননী স্ত্রী সুফিয়া বেগমকে মারপিট করে। এতে স্ত্রী গুরুতর অসুস্থ্য হলে তাকে ফুলপুর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক সুফিয়া বেগমকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ সংবাদ পেয়ে হাসপাতাল থেকে রাতেই সুফিয়া বেগমের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন এবং অভিযান চালিয়ে স্বামী আবু সাঈদ বাবুকে গ্রেফতার করেন। এ ব্যাপারে ফুলপুর থানায় রাতেই নিহতের মা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেন। শুক্রবার নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ফুলপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মোতালেব চৌধুরী জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। স্বামী আবু সাঈদ বাবুকে গ্রেফতার করা হয়েছে।