ফুলপুরে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে পয়ারীকে হারিয়ে রূপসী চ্যাম্পিয়ন

মোঃ খলিলুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
ময়মনসিংহের ফুলপুরে বুধবার (২ জুন) বিকালে ফুলপুর সরকারী ডিগ্রি কলেজ খেলার মাঠে ফুলপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থা আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনুর্ধ্ব ১৭) ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফাইনাল খেলায় রূপসী ইউনিয়ন দল পয়ারী ইউনিয়ন দলের মুখোমুখি হয়। খেলায় পয়ারী ইউনিয়নকে ৪-১ গোলে হারিয়ে রূপসী ইউনিয়ন চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

ফুলপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ও   উপজেলা নির্বাহী অফিসার শীতেষ চন্দ্র সরকারের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফাতেমা তুজ জোহরা, ফুলপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইমারত হোসেন গাজী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা এম এ হাকিম সরকার, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান, ফুলপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শেখ জসিম উদ্দিন, ছনধরা ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম, সিংহেশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান ডাঃ আব্দুল মোতালেব, পয়ারী ইউপি চেয়ারম্যান মফিজুল ইসলাম, রূপসী ইউপি চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি ইউপি সদস্য রবিউল করিম, বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আজহারুল মোজাহীদ সরকার, বওলা ইউপি চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক,উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সহযোগি সংগঠনের  নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিকসহ গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ। 
ফাইনাল খেলা সঞ্চালনায় ছিলেন, ফুলপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক ও টুর্ণামেন্টের সদস্য সচিব আনিছুর রহমান স্বপন ও উপজেলা যুব উন্নয়ন অফিসার আবুল বশার ভূইয়া।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট (অনুর্ধ্ব-১৭) ফাইনাল খেলায় খেলার নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই ৪-১ গোলে পয়ারীকে হারিয়ে রূপসী চ্যাম্পিয়ন হয়। খেলা শেষে চ্যাম্পিয়ন রূপসী ইউনিয়নকে ও রানারআপ পয়ারী ইউনিয়ন দল এবং খেলোয়ারদের হাতে ট্রফি তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।
খেলায় সেবা গোলদাতা হয়েছে দীপ্ত, ম্যান অব দি ম্যাচ হয়েছে মাহবুবুর রহমান এবং ম্যান অব দি টুর্ণামেন্ট হয়েছে মাহমুদুল হাসান।
খেলা পরিচালনায় রেফারির দায়িত্বে ছিলেন মোঃ নজরুল ইসলাম, রহমত আলী সিকদার, সিব্বির আহমেদ। ৪র্থ রেফারির দায়িত্বে ছিলেন সালেহ আহমেদ।