ফুলপুরে অতিরিক্ত দামে ও কেজি দরে তরমুজ বিক্রি করায় দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা

মোঃ খলিলুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ
ময়মনসিংহের ফুলপুরে পবিত্র মাহে রমজান ও তাপদাহকে কাজে লাগিয়ে অতিরিক্ত দামে ও কেজি দরে তরমুজ বিক্রি করার অপরাধে দুই তরমুজ ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফাতেমা তুজ-জোহরার নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত ফুলপুর বাসস্ট্যান্ড ও কলেজ রোডে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করেন।

জানা যায়, মাহে রমজান ও তাপদাহকে কাজে লাগিয়ে ময়মনসিংহের ফুলপুরে এক শ্রেণীর ব্যাবসায়ীরা অতিরিক্ত দামে ও কেজি দরে বিক্রি করছে তরমুজ। গরমের সুস্বাদু ফল তরমুজ খেটে-খাওয়া মানুষের নাগালের বাইরে বিক্রি হচ্ছে। তরমুজ ব্যবসায়ীরা তরমুজ কম দামে পিস হিসেবে ক্রয় করে সাধারণ মানুষের কাছে অতিরিক্ত দামে  খুচরা কেজি দরে বিক্রি করে আসছে। সিন্ডিকেট করে প্রতি কেজি তরমুজ ৬০ টাকায় বিক্রি করছে। এতে একটি তরমুজ ক্রেতাদের কিনতে হয় ৪০০ থেকে ৫০০ টাকায়। যা সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। 

এমন সংবাদ পেয়ে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফাতেমা তুজ জোহরা নিজে ক্রেতাসেজে তরমুজ কিনতে যান। এসময় তার নিকট তরমুজের অতিরিক্ত দাম চাওয়া হয় ও কেজি দরে তরমুজ বিক্রি করার কথা বলে ব্যবসায়ী। বিষয়টি প্রমাণিত হওয়ায় ও পণ্যের ক্রয় রশিদ দেখাতে ব্যর্থ হওয়ায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এবং কৃষি বিপণণ আইন ২০১৮ অনুযায়ী ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফাতেমা তুজ জোহরা ফুলপুর বাসস্ট্যান্ডে তরমুজ ব্যবসায়ী ভুট্টুকে ৩ হাজার টাকা ও ফুলপুর কলেজ রোডে তরমুজের আড়ৎদার জুয়েলকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে তা আদায় করেন। সেই সাথে তরমুজসহ সকল ভোগ্যপণ্যের বাজারে উপজেলা প্রশাসনের নিয়মিত অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে সংশ্লিষ্ট আইন সম্পর্কে সকল পাইকারী ও খুচরা বিক্রেতাকে সর্তক করা হয় এবং ন্যায্যমূল্যে পণ্য বিক্রির নির্দেশ দেয়া হয়।  

সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফাতেমা তুজ জোহরা বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জনস্বার্থে মোবাইল কোর্টের অভিযান অব্যাহত থাকবে।