পশ্চিমবঙ্গে টিকাকেন্দ্রে পদদলিত হয়ে আহত ২০

একদিনে প্রায় ১১ লাখ মানুষকে করোনাভাইরাসের টিকা দিয়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য। তবে এই বিপুল মানুষকে টিকা দিতে গিয়ে জলপাইগুড়ি জেলার একটি টিকাকেন্দ্রে ঘটেছে পদদলনের ঘটনা। এতে আহত হয়েছে অন্তত ২০ জন।
অবশ্য স্থানীয়দের দাবি আহত হয়েছে ২০ জন। কিন্তু পুলিশ বলছে আহতের সংখ্যা ২০ জন আর পাঁচজনকে মারাত্মক অবস্থার কারণে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রাজ্যের উত্তরাঞ্চলীয় জেলা জলপাইগুড়ির ধূপগুড়ি ব্লকের একটি স্কুলকে বানানো হয় টিকাদান কেন্দ্র। ওই স্কুলের প্রবেশ পথে ভোর থেকে জড়ো হয় শত শত মানুষ। সমবেতরা মূলত আশপাশের গ্রামের বাসিন্দা আর চা বাগানের শ্রমিক।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, টিকাকেন্দ্রের কাছে প্রায় দুই হাজার মানুষ সেখানে জড়ো হয়। আর সেখানে ভোরে পুলিশের কোনো উপস্থিতি ছিল না।
সকাল ১০টার দিকে পুলিশ উপস্থিত হয়ে স্কুলের গেট খুলে দিলে সমবেতরা দ্রুত একে অপরকে ধাক্কা দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করতে যায়। হুড়োহুড়িতে বেশ কয়েক জন নারী, শিশু ও বয়স্ক ব্যক্তি মাঠে পড়ে যায়। মানুষকে সাহায্য করতে গিয়ে আহত হয় এক পুলিশ সদস্যও।

পরে বেশি সংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। আহতদের উদ্ধারে এগিয়ে আসে স্থানীয়রাও।
জলপাইগুড়ি পুলিশ সুপারিটেন্ডেন্ট দেবশ্রি দত্ত বলেন, প্রায় ২০ জন আহত হয়। কিন্তু ১৫ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর ৫ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে স্থানীয়দের দাবি, অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। আর আট জনকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ঘটনাটি তদন্ত করে দেখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
খবর এনডিটিভি