পর্ন ভিডিও থেকে দৈনিক ৮ লাখ রুপি আয় রাজ কুন্দ্রার

পর্ন ভিডিও তৈরি ও তা অ্যাপের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী ব্যবসায়ী রাজ কুন্দ্রা। এ চক্রের মূলহোতা যে রাজ কুন্দ্রা, সে সম্পর্কে মুম্বাই পুলিশ পাকাপোক্ত প্রমাণ থাকার দাবি করেছে।
মুম্বাইয়ের যুগ্ম নগরপাল মিলিন্দ ভারাম্বে জানান, এ পর্ন ভিডিও ব্যবসা থেকে প্রতিদিন ৬-৮ লাখ টাকা উপার্জন করতেন রাজ কুন্দ্রা। যুক্তরাজ্যের বাসিন্দা আত্মীয় প্রদীপ বক্সীর সঙ্গে যোগসাজশ করে এই ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি।

তিনি আরো জানান, হাজার হাজার কোটিতে এই ব্যবসার লেনদেন হয়েছে, সেই সব আর্থিক লেনদেনের প্রমাণ আমাদের হাতে রয়েছে। আমরা এসব আয় খতিয়ে দেখছি। এইগুলো অপরাধের প্রমাণ হিসেবে ধরা হবে, এখন পর্যন্ত আমরা রাজ কুন্দ্রার বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট থেকে ৭.৫ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করেছি।

২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে রাজ কুন্দ্রা আর্মস প্রাইম মিডিয়া নামে একটি কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। ছয় মাস পর সেই কোম্পানির আওতায় তৈরি হয় হটশট নামের ভিডিও অ্যাপ। যে অ্যাপটিকে মুম্বাই পুলিশের পক্ষ থেকে পর্ন স্ট্রিমিং অ্যাপ বলে দাবি করা হয়েছে। পরবর্তীতে লন্ডনের ব্যবসায়ী প্রদীপ বক্সীকে ২৫ হাজার ডলারে এই অ্যাপ বিক্রি করে দেন রাজ কুন্দ্রা। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে আর্মস প্রাইম মিডিয়া থেকে পদত্যাগ করেন রাজ কুন্দ্রা। কিন্তু হটশটের যাবতীয় কর্মকাণ্ড চলত রাজের নেতৃত্বেই। হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে উঠে এসেছে সেই তথ্য-প্রমাণ। শালীনতার মাত্রা ছাড়ানোর জেরে ২০২০ সালের জুন মাসেই গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপেল অ্যাপ স্টোর থেকে বাতিল করা হয় এই অ্যাডাল্ট অ্যাপ।

ভরাম্বে জানান, ভারতে বসে ভিডিও তৈরি করেও সেটা আপলোড করতে পারবেন সরকারি প্রতিবন্ধকতার ছাড়াই, সে কারণে মুম্বাই থেকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে ফরেন প্ল্যাটফর্মে ওই পর্ন ভিডিও পাচার করতেন রাজ কুন্দ্রা। অভিযুক্তর অফিস থেকেই লন্ডনের কোম্পানি কেনরিন লিমিটেডে সেসব ভিডিও পাঠাতেন তিনি। এরই মধ্যে সার্ভারের ডেটা খতিয়ে দেখছে মুম্বাই ক্রাইম ব্রাঞ্চ।