পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামো নির্মাণ ডিসেম্বরেই

ডিসেম্বরেই শেষ হচ্ছে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর মূল অবকাঠামো নির্মাণকাজ। আর মাত্র ৪টি স্প্যান বসলেই-দৃশ্যমান হবে পুরো সেতু। প্রকল্প পরিচালক বলছেন- ডিসেম্বরের মধ্যে সব স্প্যান বসানো শেষ হলেও-নির্ধারিত সময়-২০২১ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্প শেষ করা কঠিন হবে।
করোনা ও বন্যার কারণে মাঝখানে ৪ মাস অনেকটা স্থবির ছিল স্প্যান বসানোর কাজ। কিন্তু সব বাধা পেরিয়ে আবার গতি ফিরেছে পদ্মা সেতুর কর্মযজ্ঞে।

গেল ১০ অক্টোবর থেকে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত সময়ে পদ্মায় বসে গেছে নতুন ছয়টি স্প্যান। সবশেষ ৩৭ তম স্প্যান বসানোর মাধ্যমে মূল সেতুর ৫ হাজার ৫৫০ মিটার দৃশ্যমান। আর মাত্র চারটি স্প্যান বসানো গেলেই স্বপ্নের পদ্মা সেতুর ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান হবে। সেক্ষেত্রে-ডিসেম্বরের মধ্যেই সব স্প্যান বসানোর ব্যাপারে আশাবাদী প্রকল্প পরিচালক।
পদ্মা সেতুতে ৪২টি খুঁটির ওপর বসছে ৪১টি স্প্যান। এর মধ্যে বসে গেছে ৩৭টি স্প্যান। বাকি ৪টি স্প্যানের ২টি চলতি মাসে এবং শেষ দুটি বসানোর পরিকল্পনা রয়েছে বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে।
চলতি বছরের ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত মূল সেতুর অগ্রগতি ৯০ দশমিক ৫০ ভাগ। আগামী বছরের জুনে প্রকল্প শেষের লক্ষ্য থাকলেও-করোনা বাস্তবতায় তা সম্ভব হচ্ছে না বলেই জানাচ্ছেন প্রকল্প পরিচালক।
৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘের দ্বিতল পদ্মা সেতুর পুরোটাই নির্মিত হচ্ছে স্টিল ও কংক্রিট স্ট্রাকচারে। যে সেতুর ওপরে থাকবে কংক্রিটিং ঢালাইয়ের চাল লেনের মহাসড়ক আর তার নিচ দিয়ে যাবে রেললাইন।