ন্যাম সম্মেলনে যোগ দিতে আজারবাইজান যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের (ন্যাম) ১৮তম সম্মেলনে যোগ দিতে আজারবাইজান সফরে যাচ্ছেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন তার প্রেস সচিব ইহসানুল করিম।

বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) বিকেলে প্রধানমন্ত্রী তার সফরসঙ্গীদের নিয়ে আজারবাইজানের রাজধানী বকুর উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন।

আগামী শুক্র ও শনিবার বকুর কংগ্রেস সেন্টারে ১২০টি উন্নয়নশীল দেশের ফোরাম ন্যামের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

সফরসূচি অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলইন্সের একটি বিশেষ বিমান বকুল উদ্দেশে হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করবে।

স্থানীয় সময় রাত ৮টা ৫৫ মিনিটে বিমানটির বাকু হায়দার অলিয়েভ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করার কথা রয়েছে।

বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানানোর পর মোটর শোভাযাত্রা সহকারে তাকে হিলটন বাকু হোটেলে নিয়ে যাওয়া হবে। চারদিনের সফরকালে তিনি এ হোটেলেই অবস্থান করবেন।

শেখ হাসিনা শুক্রবার বাকু কংগ্রেস সেন্টারে ১৮ তম ন্যাম সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। অনুষ্ঠানস্থলে আজারবািইজানের প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী এবং স্পিকার ন্যাম নেতারা তাকে অভ্যর্থনা জানাবেন।

সেখানে বিমান বন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে হোটেল হিলটন বাকু-তে যাবেন প্রধানমন্ত্রী। আজারবাইজান সফরে এ হোটেলেই থাকবেন তিনি।

শুক্রবার ১৮তম ন্যাম সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর দুপুরে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের সঙ্গে মধ্যাহ্ণভোজে অংশ নেবেন শেখ হাসিনা।

সন্ধ্যায় আজারবাইজানের রাষ্ট্রপতি হায়দার আলিয়েভের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার ন্যাম সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। এদিন সন্ধ্যায় আজারবাইজানে বাংলাদেশের দূত হিসেবে দায়িত্বপ্রাপ্ত তুরস্কে নিযুক্ত বাংলাদেমের রাষ্ট্রদূতের দেয়া নৈশভোজে অংশ নেবেন শেখ হাসিনা।

এ সম্মেলনে সদস্যভুক্ত দেশ ছাড়াও পর্যবেক্ষক দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান, প্রতিনিধি, বিভিন্ন সংস্থার প্রধান ও প্রতিনিধিরা এ সম্মেলনে অংশ নেবেন। এরপর রবিবার সন্ধ্যায় দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।