দুর্গাপুরে উপজেলা স্বাস্হক্ম্প্লেক্সের এ্যাম্বুলেন্স বিকল

29
দুর্গাপুরে উপজেলা

নিউজ ডেস্ক :
নেত্রকোনার দুর্গাপুরে উপজেলা স্বাস্হ্য কম্প্লেক্সের এ্যাম্বুলেন্স বিকল থাকায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রোগীদের। জরুরী সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সাধারণ রোগী ও স্বজনরা। উন্নত চিকিৎসার জন্য এ হাসপাতাল থেকে ময়মনসিংহ ও অন্যত্র রোগীদের পাঠাতে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত অর্থ।

এ নিয়ে বুধবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সরকারি এম্বুলেন্সটি দীর্ঘ দুই মাস আগে মেরামতের জন্য ময়মনসিংহ পাঠানো হয়েছিলো। আর্থিক জটিলতার কারনে তা আনা হচ্ছে না দুর্গাপুর। সরকারি অ্যাম্বুলেন্স বিকল থাকার সুযোগে বেসরকারি পর্যায়ে গড়ে ওঠেছে একাধিক অ্যাম্বুলেন্স।

এ বিষয়ে এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ মো. মামুনুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি মুঠোফোনে বলেন, মেরামতের জন্য ময়মনসিংহে পাঠানো হয়েছে। এম্বুলেন্সের যন্ত্রপাতি না পাওয়ায় মেরামতে একটু দেরি হলেও চালক না থাকায় সমস্যায় পরতে হচ্ছে আমাদের। এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

নিউজ ডেস্ক :
নেত্রকোনার দুর্গাপুরে উপজেলা স্বাস্হ্য কম্প্লেক্সের এ্যাম্বুলেন্স বিকল থাকায় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে রোগীদের। জরুরী সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সাধারণ রোগী ও স্বজনরা। উন্নত চিকিৎসার জন্য এ হাসপাতাল থেকে ময়মনসিংহ ও অন্যত্র রোগীদের পাঠাতে গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত অর্থ।

এ নিয়ে বুধবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সরকারি এম্বুলেন্সটি দীর্ঘ দুই মাস আগে মেরামতের জন্য ময়মনসিংহ পাঠানো হয়েছিলো। আর্থিক জটিলতার কারনে তা আনা হচ্ছে না দুর্গাপুর। সরকারি অ্যাম্বুলেন্স বিকল থাকার সুযোগে বেসরকারি পর্যায়ে গড়ে ওঠেছে একাধিক অ্যাম্বুলেন্স।

এ বিষয়ে এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ মো. মামুনুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি মুঠোফোনে বলেন, মেরামতের জন্য ময়মনসিংহে পাঠানো হয়েছে। এম্বুলেন্সের যন্ত্রপাতি না পাওয়ায় মেরামতে একটু দেরি হলেও চালক না থাকায় সমস্যায় পরতে হচ্ছে আমাদের। এ বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।