ত্রিশালে সেতুর দুইপাশ দখল মুক্তের অভিযানে নিরাপদ হলো যাতায়াত

150

এইচ.এম জোবায়ের হোসাইন :
ত্রিশাল পৌরসভার মূল সড়কে সেতুর দুই পাশ দখল করে বসা অবৈধ দোকান সরাতে অভিযান পরিচালনা করেছে উপজেলা প্রশাসন।

রবিবার সকালে করা এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসান আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ।

এসময় বেশকয়েকটি দোকান সরিয়ে দেয়া হয় এবং তাদেরকে সতর্ক করা হয়। ভবিষ্যতে মানুষের যাতায়াতে অসুবিধা হয় এমন যায়গায় দোকান করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, পৌরসভার মূল সড়কের ওপর সুতিয়া নদীতে তৈরি সেতু দখল করে কিছু লোক অবৈধভাবে দোকান বসিয়ে ব্যবসা করছিল। এতে পথচারীদের সেতু পারাপারে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছিল যানবাহনের চাপ বাড়লেই সৃষ্টি হচ্ছিল যানজটের। ঘটতো ছোট-বড় দুর্ঘটনা।

সেতুর দুই পাশে শাড়ি, লুঙিসহ বিভিন্ন পোশাকের দোকানও ছিল। এখানে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য থেকে শুরু করে বিভিন্ন মসলা জাতীয় ভোগ্যপণ্যও বিক্রি হতো। এ ছাড়া বিভিন্ন মৌসুমি ফল ও দ্রব্যাদি বিক্রি হতো বলেও জানিয়েছিল পথচারীরা।

ময়মনসিংহ শহর থেকে নিজ বাড়ি ফেরার পথে কথা হলে জামাল উদ্দিন নামে একজন বলেন, মাসে দুই/একবার বাড়ি যায়। আগে যাওয়ার পথে ব্রিজ পাড়ি দিতে বেশ সমস্যায় পড়তে হতো। আজ নির্বিঘ্নে পাড় হলাম ব্রিজটি।

মোটরবাইক চালক আব্দুল করীম বলেন, ব্রিজের উপর বসা দোকানের পাশাপাশি ফুটপাতের দোকান গুলোও অপসারণ করা উচিত। প্রশাসনের নিয়মিত নজরদারি না থাকলে কয়েকদিনের মধ্যেই আবারও এই অবৈধ দোকান বসা শুরু করবে। তাই নিয়মিত নজরদারি থাকাটা জুরুরি।

উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসান আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জানান, আমি কয়েকদিন হলো এ উপজেলায় যোগদান করেছি। বিষয়টি আমার নজরে আসে এবং সর্বসাধারণের দাবীর প্রেক্ষিতে ওদের স্থানান্তরিত হওয়ার পরামর্শ দিলে সবাই শান্তিপূর্ণভাবে স্থানান্তরিত হন।