ত্রিশালে ছোট ভাইদের গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি :
ময়মনসিংহের ত্রিশালে বিয়ারা পাটুলি গ্রামরে কামরুজ্জামান ও নূরুল ইসলামের গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সহোদর বড় ভাই ইলিয়াস উদ্দিনের বিরুদ্ধে।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়নের বিয়ারা পাটুলি গ্রামরে কামরুজ্জামানের পিতা তার চার ছেলের মধ্যে মৃত্যুর আগেই অলিখিত ভাগ বাটোয়ারা করেদেন। কামরুজ্জামান পৈত্রিক সূত্র প্রাপ্ত জমির ভোগ দখলে। কিন্তু দীর্ঘদিন যাবৎ তার সহোদর বড় ভাই ইলিয়াস উদ্দিন বিভিন্ন ভাবে কামরুজ্জামানের জমির দখলে যাওয়ার চেষ্টা করছেন বলে জানান। অন্যদিকে নূরুল ইসলামের জমি থেকে গত পাঁচদিন আগে রেনটি ও নিম গাছ কেটে নেয় সহোদর বড় ভাই ইলিয়াস উদ্দিন, গাছ দুটি’র বাজার মূল্য অনুমান ১৫ হাজার টাকা। বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) সকালে লোক-জন নিয়ে কামরুজ্জামানের জায়গার দুটি কাঁঠাল গাছ, একটি নিম গাছ, একটি পিত্রাজ গাছ কেটে ফেলে পরে এলাকার লোকজন গিয়ে তাকে বাধা দিলে সে গাছ কাটার কাজ বন্ধ করে।

নূরুল ইসলাম জানান, আমার ক্রয়কৃত জমির উপরে থাকা রেনটি ও নিম গাছ আমার বড় ভাই ইলিয়াস উদ্দিন জোড় পূর্বক কেটে নেয়, গাছ দুটি’র বাজার মূল্য অনুমান ১৫ হাজার টাকা। আমি প্রশাসনের কাছে এর বিচার দাবী করছি।

কামরুজ্জামান বলেন, বড় ভাই ইলিয়াস উদ্দিন তার নিজ স্বার্থের জন্য আমাদের পরিবারে দীর্ঘদিন যাবৎ কলহ বাধিয়ে আসছে। জোড় পূর্বক ভাড়াটিয়া গোন্ডা নিয়ে বিভিন্ন সময়ে আমাকে হুমকি দমকি দেয়। আমার জমির ভোগ দখলে যাওয়াই তার মূল উদ্দেশ্য। পৈত্রিক সূত্র প্রাপ্ত আমার জমিতে থাকা কয়েকটি গাছ কেটে ফেলে। পরে স্থানীয়দের সহযোগীতায় একটি তাল গাছ ও একটি কাঁঠাল গাছ রক্ষা করতে পারি।

ইলিয়াস উদ্দিন জানান, তাদের অভিযোক মিথ্যা ও বানোয়াট। আমার বাবা যে ভাবে ভাগ করে দিয়েছে তার বিপরীতে সুবিধা অনুযায়ী তারা ভোগ দখলে আছে। আমি আমার দুই ভাইয়ের গাছ কাটিনি এগুলো আমার রোপন করা গাছ।