তীব্র স্রোতে বসানো যায়নি পদ্মাসেতুর ৩২তম স্প্যান

পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান বসানোর কথা থাকলেও নদীতে তীব্র স্রোতের কারণে বসানো যায়নি। শনিবার (১০ অক্টোবর) পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি আরও জানান, স্প্যানটি সেতুর মাওয়া প্রান্তে ৪ ও ৫ নম্বর পিলারের ওপর বসানোর কথা ছিল। সকাল থেকে সেতু কর্তৃপক্ষ স্প্যানটি বসানোর চেষ্টা করে ও স্রোতের তীব্রতার কারণে তা আর হয়ে ওঠেনি।

স্প্যানটি বর্তমানে ৪ ও ৫ পিলারের কাছে নোঙ্গর করা রয়েছে। রোববার (১১ অক্টোবর) সকালে আবার স্প্যানটি বসানো শুরু হবে বলে জানানো হয়। ৩২তম স্প্যানটি বসলে দৃশ্যমান হবে সেতুর ৪ হাজার ৮০০ মিটার অর্থাৎ প্রায় পাঁচ কিলোমিটার।

শুক্রবার (৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় পদ্মাসেতু কর্তৃপক্ষ জানায়, সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে আজ ১০ অক্টোবর একদিনের মধ্যেই স্প্যানটি বসানোর কথা ছিল। ৩১তম স্প্যান বসানোর ৪ মাস পর বসতে যাচ্ছিল এ স্প্যানটি।

পদ্মাসেতুর এ প্রকৌশলী আরও জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাস ও বন্যা পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘদিন স্প্যান বসানোর কার্যক্রমে ধীরগতি দেখা দেয়। বর্তমানে পদ্মা নদীতে পানির গভীরতা অনুকূলে আসায় প্রকৌশলীরা স্প্যান বসানোর কাজে গতি আনার পরিকল্পনা করছেন।