তারাকান্দায় নিহত শিক্ষার্থী ইকবালের বাড়িতে শোকের মাতম

মোঃ খলিলুর রহমান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ   
ময়মনসিংহে রুমডো পলিটেকনিকেল ইনস্টিটিউট সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া শিক্ষার্থী নিহত মোঃ শাহিনুর আলম ওরফে ইকবাল (১৯) এর মর্মান্তিক হত্যার বিচার দাবীতে মায়ের আহাজারী, বোনের চিৎকার, বাবার বুক ফাটা কান্নায় পরিবারে সবাই প্রায় বাক রুদ্ধ হয়ে বার বার মূর্চা যাচ্ছে।
চিৎকার করে পাগলের মত মাটিয়ে গড়াগড়ি করে নিহত  ইকবালের মা জামেলা খাতুন ও জন্মদাতা পিতা আব্দুর রউফ বলছিল,”আমার বাবারে আমার কাছে ফিরাইয়া দাওগো,
আমার বাবারে ৬ দিন যাবত কোথায় লোকাইয়া রাখছিলগো,এমন কইরা আমার বাবারে মারলগো। পুত্র শোকে তারা বার বার মুর্ছা যাচ্ছেন। তারাকান্দার কামারিয়া ইউনিয়নের পলাশকান্দা গ্রামে নিহত ইকবালের বাড়িতে গিয়ে এমন দৃশ্য দেখা গেছে। সেই সাথে পুরো পলাশকান্দা গ্রামে চলছে শোকের মাতম।

পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, তারাকান্দা উপজেলার কামারিয়া ইউনিয়নের পলাশকান্দা গ্রামের আবদুর রউফ এর পুত্র ময়মনসিংহ রুমডো পলিটেকনিকেল ইনস্টিটিউট সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া শিক্ষার্থী মোঃ শাহিনুর আলম ওরফে ইকবাল (১৯) গত সোমবার (৩১মে) রাত ১০ টায় বাড়ির পাশে এক দোকানে চা পানের কথা বলে বের হয়ে যায়। এরপর সে আর বাড়ি ফিরেনি। এ ব্যাপারে পরদিন মঙ্গলবার (১ জুন) ওই শিক্ষার্থীর পিতা আব্দুর রউফ তারাকান্দা থানার জিডি করেন। নিখোঁজের পর অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার  কোনো সন্ধান পায়নি পরিবার। শনিবার (৫ জুন) সকালে নিখোঁজ ছাত্রের বাড়ির ২শ মিটার দূরে পরিত্যাক্ত হাউজি খেলার মাঠে দুর্গন্ধ ছড়ালে দেখতে পেয়ে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দেয়। তারাকান্দা থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিত্যক্ত হাউজি মাঠের পাশে টয়লেটের ট্যাংক থেকে একটি লাশ উদ্ধার করে। পরিবারের লোকজন লাশটি নিখোজ ছাত্র শাহিনুর আলম ওরফে ইকবালের বলে সনাক্ত করেন। লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের পর মোঃ শাহিনুর আলম ওরফে ইকবালের  লাশ গ্রামের বাড়িতে এসে পৌছলে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন পিতা আব্দুর রউফ, মা জামেলা খাতুন, বোন সুমি ও বড় ভাই সেলিম, আত্মীয় স্বজন ও এলাকাবাসী। শনিবার রাত সাড়ে ৯ টায় নামাজে জানাযা শেষে পারিবারিক কবর স্থানে তাকে দাফন করা হয়। পুত্র শোকে কাতর মা-বাবাকে সমবেদনা জানাতে প্রতিনিয়ত রফিকুলের বাড়িতে ভিড় করছে আত্মীয়স্বজন ও এলাকাবাসী।
ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়া শিক্ষার্থী মোঃ শাহিনুর আলম ওরফে ইকবাল হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও বিচারের দাবী জানিয়েছে পরিবার ও এলাকাবাসী।