ডাকাতির প্রস্তুতিকালে রাজধানীতে ৫ ডাকাত গ্রেফতার

রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানার চন্দ্রিমা উদ্যান এলাকা থেকে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান (র‌্যাব)। তাদের কাছ থেকে চারটি ছুরি, স্টিলের কাঁচি, এন্টিকাটারসহ ডাকাতি করার সরঞ্জামাদি ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১৩ সেপ্টেম্বর) র‌্যাব-২ এর সহকারী পরিচালক (এএসপি) সাইফুল মালিক ব্রেকিংনিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলো- মো. কামরুল (৩৮), মো. মোবারক হোসেন (২৮), মো. মুন্না (৩৫), মো. সুজন মিয়া (২০) ও মো. সজল মিয়া (১৯)।

সাইফুল মালিক বলেন, ‘বুধবার রাতে শেরেবাংলা নগর থানাধীন উড়োজাহাজ ক্রসিং এলাকার চন্দ্রিমা উদ্যান বটতলায় একাধিক ব্যক্তি অন্ধকারাছন্ন ফাঁকা জায়গায় দেশীয় অস্ত্র ও ডাকাতির সরঞ্জামাদীসহ অবস্থান করছিল। র‌্যাবের একটি দল গোয়েন্দা সূত্রে এতথ্য জানাতে পারে। এরপর র‌্যাবের অভিযানিক দলটি সেখানে গেলে কয়েকজন যুবক দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় র‌্যাব সদস্যরা পাঁচজনকে গ্রেফতার করে।’

গ্রেফতারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তারা আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য। বিশেষ করে দিনের বেলায় তারা ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় নগদ অর্থ, মোবাইল, ল্যাপটপ, ভ্যানিটি ব্যাগ ইত্যাদি মূল্যবান সামগ্রী ছিনতাই করে। এছাড়াও রাতের বেলায় তারা এরকম দুই বা ততোধিক দল একত্রিত হয়ে নির্দিষ্ট ফ্ল্যাটে বা ফাঁকা বাড়িতে গ্রিল কেটে ও তালা ভেঙে প্রবেশ করে ডাকাতি করে থাকে।

গ্রেফতারকৃতদের বরাত দিয়ে র‌্যাব কর্মকর্তা সাইফুল মালিক জানান, তারা দীর্ঘদিন ধরে চাপাতি, ছুরি, চাকু ও অন্যান্য দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ভয় দেখিয়ে ছিনতাই ও ডাকাতি করে আসছিল। আটক আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। এসব যাচাই বাছাই করে তাদের সহযোগীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে।

র‌্যাব সূত্র জানায়, গ্রেফতার হওয়া কামরুলের বাবার নাম মৃত জালাল উদ্দীন। গ্রামের বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনা আকন্দবাড়িয়ায়। ফার্মগেট এলাকায় থাকতো সে। মোবারকের বাবার নাম মৃত আব্দুর রব। তার গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ থানাধীন বানিয়াদিতে। সে মোহাম্মদপুরের জহুরী মহল্লার ৩৬/১ নম্বর বাসায় থাকতো। মুন্নার বাবার নাম মৃত রইছ উদ্দিন। তার বাসা মোহাম্মদপুরের জেনেভা ক্যাম্পের সি ব্লকের ২৫৫ নম্বর প্লটে। সুজনের বাবার নাম মানিক মিয়া। গ্রামের বাড়ি ঝালকাঠি জেলার রাজাপুর সাংগর এলাকায়। সে শেরেবাংলা নগর থানাধীন শাপলা হাউজিংয়ের ২০১/৩ নম্বর বাসায় থাকতো। সজলের বাবার নাম মাহাবুব মিয়া। গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে।